দার্জিলিং: জিটিএ কর্তৃপক্ষের সঙ্গে বৈঠকের পর আসন্ন দীপাবলি পর্যন্ত কর্মবিরতি প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত নিল কর্মী সংগঠন ইউনাইটেড এমপ্লয়িজ অ্যাসোসিয়েশন (UEA)।

স্থায়ীকরণ-সহ একাধিক দাবিকে সামনে রেখে লাগাতার আন্দোলনেও জিটিএ (GTA) কর্তৃপক্ষ কোনো সদর্থক পদক্ষেপ না নেওয়ায় টানা কর্মবিরতিতে শামিল হয়েছিলেন চুক্তিভিত্তিক কর্মীরা। শুক্রবার সংগঠনের তরফে জানানো হল, তাদের দাবি-দাওয়াগুলি নিয়ে জিটিএ কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনার পর আপাতত কর্মবিরতি প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

এ দিনের বৈঠকের পর সংগঠন জানায়, জিটিএ প্রশাসনিক পর্ষদের চেয়ারম্যান অনিত থাপা, জিটিএ-র মুখ্যসচিব, সচিব এবং এগজিকিউটিভ ডিরেক্টর লালকুঠিতে জিটিএ-র কর্মী সংগঠনের সঙ্গে বৈঠকে বসেন। গত ১ সেপ্টেম্বর থেকে কার্যালয়ে উপস্থিতি হয়েও কর্মবিরতিতে শামিল হয়েছিলেন সংগঠনের সদস্যরা। এ দিন দীর্ঘ আলোচনার পর সেই কর্মবিরতি প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

জানা গিয়েছে, বর্তমান কোভিড-১৯ মহামারির পরিস্থিতিতে কর্মী সংগঠনের উদ্দেশে জিটিএ কর্তৃপক্ষ অনুরোধ করেন কর্মবিরতি প্রত্যাহার করে নিতে। কোভিডের জেরে এক দিকে আর্থিক সংকট, অন্য দিকে সামনে উৎসবের মরশুম। এমন পরিস্থিতিতে কর্মবিরতি প্রত্যাহারের অনুরোধ জানানো হয়। একই সঙ্গে আশ্বাস দেওয়া হয়, দীপাবলির মধ্যে রাজ্য সরকারের সঙ্গে আলোচনার মাধ্যমে এ বিষয়ে সদর্থক পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

জিটিএ কর্তৃপক্ষের অনুরোধ এবং আশ্বাসের পর দীপাবলি পর্যন্ত কর্মবিরতি থেকে সরে আসার সিদ্ধান্ত নেয় কর্মী সংগঠন। তবে তার পরেও যদি না কোনো পদক্ষেপ নেওয়া হয়, তা হলে ফের পরবর্তী কর্মসূচি নেওয়া হবে বলে হুঁশিয়ারি দিয়ে রেখেছে ইউইএ।

প্রসঙ্গত, সংগঠনের অভিযোগ, নতুন প্রশাসন গঠিত হলেও জিটিএ-র নির্দিষ্ট শ্রেণির কর্মীরা পড়ে রয়েছেন অন্ধকারেই। ২০ বছরেরও বেশি সময় ধরে কর্মরত থাকলেও নির্দিষ্ট শ্রেণির কর্মীরা বঞ্চিত প্রাপ্য সুযোগ থেকে। একাধিক বার রাজ্য সরকারের তরফে এ বিষয়ে অনুমোদন মেলার পরেও উদাসীন জিটিএ কর্তৃপক্ষ। বিস্তারিত পড়ুন এখানে: জিটিএর-র চুক্তিভিত্তিক কর্মীদের নিয়মিতকরণ-সহ একাধিক দাবিতে লাগাতার আন্দোলেন কর্মী সংগঠন

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন