procession of disabled persons in bankura
বিশ্ব প্রতিবন্ধী দিবসে বাঁকুড়ায় মিছিল। নিজস্ব চিত্র।

নিজস্ব সংবাদদাতা, বাঁকুড়া: ‘সর্বশিক্ষা মিশন দিচ্ছে ডাক, সব প্রতিবন্ধী স্কুলে যাক’ – এই বার্তা সামনে রেখে যখন জেলা জুড়ে পালিত হল ‘বিশ্ব প্রতিবন্ধী দিবস’, অন্য দিকে তখন শহর বাঁকুড়াতে একটি ব্যতিক্রমী চিত্র চোখে পড়ল। ২২ দফা দাবিতে পথে নামলেন বাঁকুড়া শারীরিক প্রতিবন্ধী কল্যাণ সমিতির কয়েক হাজার সদস্য। সোমবার সংগঠনের সদস্যরা বাঁকুড়া শহরে নিজেদের দাবিদাওয়ার সমর্থনে মিছিল করে জেলাশাসকের দফতরে সামনে পৌঁছোয়। পরে সংগঠনের একটি প্রতিনিধিদল জেলাশাসকের দফতরে গিয়ে নিজেদের দাবিপত্র তুলে দেন। বাঁকুড়া জেলা প্রতিবন্ধী কল্যাণ সমিতির অভিযোগ, সমস্ত ধরনের সুযোগসুবিধা থেকে তাঁরা বঞ্চিত হচ্ছেন। সেই কারণেই ২২ দফা দাবি নিয়ে তাঁরা পথে নেমেছেন।

আরও পড়ুন ‘অপরাজেয়’ সম্মান দিয়ে বিশেষ ভাবে সক্ষমদের কুর্নিশ জানাল জলপাইগুড়ি

উল্লেখ্য, ১৯৯২ সাল থেকে রাষ্ট্রপুঞ্জের তত্ত্বাবোধনে এই বিশেষ দিনটি পালিত হয়ে আসছে। শারীরিক ভাবে অসম্পূর্ণ মানুষদের প্রতি সহমর্মিতা ও সহযোগিতা প্রদর্শন ও তাদের কর্মকাণ্ডে প্রতি উৎসাহ ও সম্মান জানানোর উদ্দেশ্যেই এই বিশেষ দিনটির সূচনা হয়।

sit and draw competition
বসে আঁকো প্রতিযোগিতা। নিজস্ব চিত্র।

রাজ্যের অন্যান্য অংশের সঙ্গে বাঁকুড়া জেলা জুড়েও পালিত হল ‘বিশ্ব প্রতিবন্ধী দিবস’। বাঁকুড়ার রবীন্দ্র ভবনে আয়োজিত এ দিনের অনুষ্ঠানের সূচনা করেন জেলা সভাধিপতি মৃত্যুঞ্জয় মুর্মু। ৩৫০ জন বিশেষ চাহিদাসম্পন্ন শিশু এ দিন বসে আঁকো প্রতিযোগিতায় যোগ দেন। সভাধিপতি মৃত্যুঞ্জয় মুর্মু বলেন, “প্রতিবন্ধকতা মানুষের মনে, কর্মে নয়। আমাদের প্রত্যেকের উচিত শারীরিক ভাবে অসম্পূর্ণ মানুষদের পাশে থাকা, যাতে করে সমাজের প্রতিটি কাজে অন্যদের মতো তারাও যোগ দিতে এগিয়ে আসতে পারে।”

procession in Indas
ইন্দাসে মিছিল। নিজস্ব চিত্র।

এ দিন ইন্দাস ব্লকের ইন্দাস ও ইন্দাস পূর্বচক্রের পরিচালনায় ‘বিশ্ব প্রতিবন্ধী দিবস ‘ পালিত হয়। ৮০ জন ছাত্রছাত্রী এ দিনের অনুষ্ঠানে যোগ দেয়। উপস্থিত ছিলেন ইন্দাস ব্লক সহকারি বিদ্যালয় পরিদর্শক স্মিতা ওঝা, অবর বিদ্যালয় পরিদর্শক সোমনাথ দাস প্রমুখ।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here