দিল্লিতে সব্যসাচী, দায়িত্ব ছাঁটল তৃণমূল!

0
Sabyasachi and Tapas

ওয়েবডেস্ক: গত শুক্রবার সকালে দিল্লি উড়ে গিয়েছেন তৃণমূল বিধায়ক সব্যসাচী দত্ত। বিজেপিতে যোগ দিচ্ছেন কি না, তা স্পষ্ট করে না বললেও ইঙ্গিত দিয়েছেন বিজেপি নেতৃত্বের সঙ্গে দেখা করার মন্তব্যে। এ দিকে তাঁর নিজের বিধানসভা কেন্দ্রে দলীয় কর্মসূচির দায়িত্ব অন্যের হাতে তুলে দিল তৃণমূল।

রাজ্য জুড়ে চলছে তৃণমূলনেত্রী তথা রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিশেষ কর্মসূচি ‘দিদিকে বলো’। এলাকাভিত্তিক দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে দলীয় নেতৃত্বকে। নিজস্ব বিধানসভা কেন্দ্রে দিদিকে বলো কর্মসূচি নিয়ে পৌঁছে যাচ্ছেন দলীয় বিধায়করা। কিন্তু রাজারহাট-নিউটাউনের বিধায়ক সব্যসাচীকে সেই দায়িত্ব থেকে সরিয়ে দেওয়া হল বলেই সূত্রের খবর। এই কর্মসূচি থেকে তাঁকে সরিয়ে নির্দিষ্ট বার্তা দিল তৃণমূল।

জানা গিয়েছে, রাজারহাট-নিউটাউন এলাকায় ‘দিদিকে বলো’ কর্মসূচির তত্ত্বাবধান করবেন বিধাননগর পুরসভার ডেপুটি মেয়র তাপস চট্টোপাধ্যায়। কয়েক মাস আগে দল-বিরোধী কার্যকলাপের জন্য বিধাননগরের মেয়র সব্যসাচীর বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব নিয়ে আসা হয়। সে সময় শোনা যা্য়, মেয়রপদের শিকে ছিঁড়তে পারে তাপসের ভাগ্যে। কিন্তু একদা সিপিএমের জাঁদরেল নেতাকে নিয়ে বিতর্ক দানা বাঁধায়, তা সম্ভব হয়নি। দলে সব্যসাচীর বিরোধী গোষ্ঠী হিসাবে পরিচিত সেই তাপসকেই এ বার দেওয়া হল এ মুহূর্তে তৃণমূলের সব থেকে বড়ো এলাকাভিত্তিক কর্মসূচির দায়িত্ব।

শনিবার রাজারহাটের বিষ্ণুপুর-১ গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার ভাতেন্ডায় ‘দিদিকে বলো’ কর্মসূচি পালন করে তৃণমূল। সব্যসাচীর অনুপস্থিতিতে রাজারহাটের ব্লক তৃণমূল সভাপতি প্রবীর কর আগে থেকেই এই কর্মসূচি শুরু করলেও এ বার সেই দায়িত্বই পালন করছেন তাপস। রাজনৈতিক মহলে গুঞ্জন, প্রবীর না কি সব্যসাচী ঘনিষ্ঠ হিসাবে পরিচিত। যে কারণে, মেপে পা ফেলতে চাইছে রাজ্যের শাসক দল।

উল্লেখ্য, সব্যসাচী কি আজই বিজেপিতে যোগ দিচ্ছেন? এমন প্রশ্নের উত্তরে স্পষ্ট ভাবে কোনো মন্তব্য করেননি সবস্যসাচী। তবে বলেছেন, দিল্লিতে গিয়ে তিনি বিজেপি নেতা-নেত্রীদের সঙ্গেও দেখা করতে পারেন। আদতে তিনি দিল্লি যাচ্ছেন ব্যবসায়িক কাজে। কিন্তু সেখানে গিয়ে কোনো রাজনৈতিক নেতৃত্বের সঙ্গে দেখা করছেন কি না, তেমন প্রশ্নের উত্তরেই এ কথা জানিয়েছেন সব্যসাচী

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here