কলকাতা: অবশেষে নতুন ডিজিটাল রেশন কার্ড হাতে পেতে চলেছেন পশ্চিমবঙ্গের মানুষ। শুক্রবার, ১৬ ডিসেম্বর থেকে এই রেশন কার্ড দেওয়া শুরু হবে বলে খাদ্য দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে। ইতিমধ্যে বিভিন্ন জেলার খাদ্য দফতরে নতুন ডিজিটাল রেশন কার্ড পৌঁছে গিয়েছে।

পঞ্চায়েত এবং পুরসভার মাধ্যেমে এই কার্ড বিলি করা হবে। তবে কী ভাবে, কোন পর্যায়ে এই কার্ড বিলা করা হবে সেটা সংশ্লিষ্ট পঞ্চায়েত ও পুরসভা ঠিক করবে। রাজ্যের খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রয় মল্লিক বলেন, “ডিজিটাল রেশন কার্ড তৈরি করতে বিশ কিছুটা সময় লাগল ঠিকই, কিন্তু এর ফলে রাজ্যে যে প্রচুর ভুয়ো রেশনকার্ড ছিল, সেগুলো এ বার পুরোপুরি বাতিল হবে। ভুয়ো রেশন কার্ডের জন্য প্রকৃত গরিব মানুষের চাল–গম তুলে নিচ্ছিলেন ভুয়ো কার্ডধারী ব্যক্তিরা। রেশন কার্ড ডিজিটাল হওয়ার ফলে কিছু দিন সমস্যায় পড়েছিলেন রাজ্যের মানুষ, তবে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশে পুরোনো কার্ড দেখিয়ে চাল ও গম পাচ্ছিলেন। এই সমস্যা চিরতরে সমাধান হতে চলেছে। শুক্রবার থেকে রাজ্যের সব জায়গাতেই নতুন ডিজিটাল রেশন কার্ড দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। ইতিমধ্যেই জেলায় জেলায় নতুন কার্ডও পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে। জেলাশাসকদের কাছে আবেদনও করা হয়েছে যাতে সুষ্ঠ ভাবে রেশন কার্ড বিলি করা হয় সে দিকে যেন নজর দেন।” 

খাদ্য দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে, রাজ্যে ৮ কোটি ১ লক্ষ মানুষ রেশনে খাদ্যদ্রব্য পান। এর মধ্যে ৬ কোটি ১ লক্ষ মানুষ কেন্দ্রীয় খাদ্য সুরক্ষায় প্রকল্পে  দু’টাকা কেজি দরে চাল ও গম পান।  মাসে ৭ থেকে ১০ কেজি চাল ও গম দেওয়া হয় এই সমস্ত পরিবারকে। রাজ্য সরকারকে বছরে ৫,৪০০ কোটি টাকা খরচ করতে হয় খাদ্য সরবরাহে ভর্তুকির জন্য।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here