Dilip Ghosh and Bharati Ghosh

ওয়েবডেস্ক: দীর্ঘদিন বাদে বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ খোদ পশ্চিম মেদিনীপুরের একটি সভা থেকে টেনে তুললেন ভারতী-প্রসঙ্গ।

পশ্চিম মেদিনীপুরের প্রাক্তন পুলিশ সুপার ভারতী ঘোষ দীর্ঘদিন যাবৎ আলোচনার বাইরে। পুলিশ সুপারের পদ থেকে ভারতীদেবীকে বদলি করা হয়েছিল বারাকপুরের তৃতীয় ব্যাটেলিয়ানে। শোনা যায়, পদোবনতিতে যারপরনাই অখুশি হন তিনি। তার পরই নতুন পদে যোগ না দিয়ে তিনি ইস্তফাপত্র এবং তিন মাসের ছুটির আবেদন করেন রাজ্যের কাছে। তার পর তো তাঁর বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগ, তল্লাশি অভিযান, চার্জশিট ইত্যাদি নিয়ে জলঘোলা হয়েছে ব্যাপক। কিন্তু বর্তমানে তিনি চলে গিয়েছেন আলোচনা বাইরে।

জঙ্গল মহলে মাওবাদী দমনে দুঁদে আইপিএস হিসাবে খ্যাতি পাওয়া ভারতীদেবী ইস্তফা দেওয়ার পর শোনা গিয়েছিল তিনি বিজেপিতে যোগ দিতে চলেছেন। এমনটাও জানা গিয়েছিল, বিজেপিতে যোগ দিতে চেয়ে তিনি দিলীপবাবু এবং মুকুল রায়কে চিঠি দিয়েছিলেন। পরে অবশ্য অডিওবার্তায় সেই দাবিকে নস্যাৎ করেন তিনি নিজেই।

মেদিনীরপুর সদরে বিজেপির অবস্থান বিক্ষোভে যোগ দিয়ে দিলীপবাবু বলেন, “ভারতী ঘোষ নামে পশ্চিম মেদিনীপুরে একজন পুলিশ সুপার ছিলেন। তিনি আমাকে খুনের মামলায় ফাঁসাতে চেয়েছিলেন”।

আরও পড়ুন: অমিতের পর পুরুলিয়ায় আসতে পারেন বিজেপির সব থেকে বড়ো ‘মানুষ-টানা’ নেতা, জানালেন মুকুল

দিলীপবাবুর অভিযোগ, “পুলিশ প্রশাসন তৃণমূলের হয়ে কাজ করছে। তবে এ সব করে কিছু হবে না। ভারতী ঘোষ এখন ইতিহাস হয়ে গিয়েছেন। আর আমরা ভূগোল হয়ে গেছি”।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here