ওয়েবডেস্ক: এই প্রথম অসমের পঞ্চায়েত নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে চলেছে তৃণমূল কংগ্রেস। অতীতে বিধানসভা নির্বাচনে অসমে দলীয় প্রার্থী দিলেও পঞ্চায়েতে এই প্রথম বার লড়তে চলছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দল। তৃণমূলের এমন সিদ্ধান্তের কথা চাউর হতেই কটাক্ষ ছুঁড়ে দিলেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ।
পশ্চিমবঙ্গের পুর ও নগরোন্নয়নমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম গুয়াহাটিতে রয়েছেন। সম্প্রতি অসমের তিনুসুকিয়ায় ৫ বাঙালি যুবককে নির্বিচারে গুলি করে মারার ঘটনায় অসমে যান তৃণমূলের প্রতিনিধি দল। এর আগেও অসমের নাগরিকপঞ্জী প্রকাশের পর তৃণমূল প্রতিনিধি দল পাঠালে বিমানবন্দর থেকেই তাদের ফেরত পাঠিয়ে দেওয়া হয়। তবে এ বার আর সে পথে হাঁটেনি অসমের বিজেপি শাসিত রাজ্য সরকার। গুয়াহাটিতে একটি সংবাদ মাধ্যমের কাছে ফিরহাদ জানান, অসমের আসন্ন পঞ্চায়েত ভোটে তাঁর দল প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে পারে। এর আগে বিধানসভা ভোটে দলীয় প্রার্থী থাকলেও এই প্রথম পঞ্চায়েত স্তরেও প্রার্থী দিতে চলেছে তৃণমূল।

এ ব্যাপারে পশ্চিমবঙ্গে বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেন,  “অসমে গিয়ে তৃণমূলের কোনো লাভ হবে না। অসমে বাঙালি ও অসমিয়াদের মধ্যে বিভেদ বাড়াতে চাইছে তৃণমূল। সেই বিভেদকে কাজে লাগিয়ে ভোটব্যাঙ্কের রাজনীতি করতে চায় তারা। কিন্তু অসমের মানুষ ওদের যাওয়া নিয়ে আগেও খুশি হয়নি, এ বারও খুশি হয়নি”।

একই সঙ্গে দিলীপবাবু কটাক্ষ করে বলেন, এনআরসি নিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উপর বিরক্ত অসম তৃণমূলের ইউনিট ছেড়ে সবাই পালিয়েছে। ফিরহাদ হাকিম সেখানে লোক খুঁজতে গিয়েছেন।

আরও পড়ুন: খামার থেকে ধরা পড়ল ৮ ফুটের ‘মুরগি চোর’ কিং কোবরা

উল্লেখ্য, আগামী ১৫ নভেম্বর থেকে অসমের পঞ্চায়েত নির্বাচনে মনোনয়ন জমা শুরু হচ্ছে।

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন