west bengal

কলকাতা: এর আগে শাসক দলের দুষ্কৃতীদের অনাথ করে দেওয়ার হুমকি দিয়ে আইনী জটিলতায় পড়েছিলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। এ বার তিনি নিজেদের দলের কুৎসা রটনাকারী অংশের উদ্দেশে সেই একই বার্তা ছুড়ে দিলেন।

তাঁকে নিয়ে দলের উচ্চ নেতৃত্ব কতটা খুশি, তা প্রায়শই সংবাদ মাধ্যম মারফত প্রকাশ্যে আসে। গত মাসখানেক ধরেই তাঁকে সভাপতিপদ থেকে সরানোর মৃদু আওয়াজ ক্রমশ জোরালো হতে শুরু করেছে। গত শনিবারও একটি সূত্র থেকে দাবি করা হয়েছে, খুব শীঘ্রই দিলীপবাবুকে ওই পদ থেকে সরিয়ে নিয়ে আসা হবে বিজেপির বিশিষ্ট অর্থনীতিবিদ নেতা আশিস সরকারকে। এমন খবর হাওয়ায় উড়তে শুরু করলে সংবাদ মাধ্যম তাঁর প্রতিক্রিয়া জানতে চায়। সে সময়ই দিলীপবাবু যথেষ্ট উত্তেজিত হয়ে বলেন, “যাঁরা এ ধরনের বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছে , দলে তাঁরা অনাথ হয়ে যাবে”।

দিলীপবাবুর এ হেন উক্তির পর রাজ্য বিজেপিতে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা যায়। তাঁর ঘনিষ্ঠদের মতে, অযথা সভাপতিপদে তাঁর থাকা, না-থাকা নিয়ে গুজব ছড়ানো হচ্ছে। দিলীপবাবুর সভাপতিপদে মেয়াদ শেষ হতে এখনও ছ’মাস সময় বাকি। ফলে এ মুহূর্তে তাঁকে কেন সরাতে যাবে দল? এ সব গুজব দলেরই একাংশ ছড়াচ্ছে বলে ধারণা তাঁদের।

আরও পড়ুন: দিলীপ সরছেনই, মুকুলও নন? নতুন মুখ উঠে আসছে রাজ্য বিজেপির সভাপতিপদে

আবার অপর একটি গোষ্ঠীর দাবি, বছর ঘুরলেই লোকসভা নির্বাচন। ফলে এখন থেকেই কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব ঘুটি সাজাতে চাইছেন। ডিসেম্বরে দিলীপবাবুর মেয়াদ শেষ হওয়ার পর যদি নতুন কাউকে দায়িত্ব দেওয়া হয়, তিনি সব কিছু বুঝে নেওয়ার সময় পাবেন না!

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here