বন্যা পরিস্থিতি নিয়ে চাপানউতোর, দায় অস্বীকার করল ডিভিসি

0
ম্যানমেড বন্যার অভিযোগ তুলেছেন মমতা। প্রতীকী ছবি

খবর অনলাইন ডেস্ক: পশ্চিমবঙ্গের কয়েকটি জেলার বন্যা পরিস্থিতির জন্য দামোদর ভ্যালি কর্পোরেশন (DVC)-এর বিরুদ্ধে ইচ্ছে মতো জল ছাড়ার অভিযোগ তুলেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। তবে এ ধরনের সমালোচনার মুখে পড়ে বুধবার ডিভিসি জানিয়ে দিল, বন্যা পরিস্থিতির জন্য তাদের উপর দোষারোপ করা ন্যায্য নয়।

ডিভিসি বলছে, রাজ্য সরকারের সম্মতি নিয়েই জল ছাড়া হয়। ফলে বন্যা পরিস্থিতির জন্য তাদের উপর দোষারোপ করা ন্যায্য নয়। রূপনারায়ণ এবং হুগলি নদীর পলি-ই এই পরিস্থিতির জন্য দায়ী।

Shyamsundar

কী বলছে ডিভিসি?

ডিভিসির এগজিকিউটিভ ডিরেক্টর (মাইথন) এ বন্দ্যোপাধ্যায় সংবাদ সংস্থা পিটিআই-এর কাছে বলেন, “ডিভিসি শুধুমাত্র নিয়ন্ত্রক কমিটির সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন করে। জল ছাড়ার আগে রাজ্য সরকারের সম্মতি নেওয়া হয় এবং জেলা প্রশাসনকে সতর্কতা জারি করা হয়। তাই বন্যার জন্য ডিভিসি-কে দায়ী করা অন্যায়”।

ডিভিসি আধিকারিকের দাবি, “রূপনারায়ণ ও হুগলি নদীতে ভারী পলি এবং উভয় তীরের অবরোধই এই সমস্যার মূল কারণ। যে সব নদীতে ২.৫ লক্ষ কিউসেক জল নিষ্কাশন করার কথা, তারা আসলে মাত্র ১ লক্ষ কিউসেক সামলাতে সক্ষম”।

কী অভিযোগ মমতার?

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর (Narendra Modi) উদ্দেশে চিঠিতে মমতা লিখেছেন, ডিভিসির ইচ্ছে মতো জল ছাড়ার কারণেই ২০১৫, ২০১৭, ২০১৯ সালের পর আবার এই বছর রাজ্যে বন্যা পরিস্থিতি তৈরি হল।

চিঠিতে মমতা লেখেন, নিম্নচাপের কারণে বিগত কয়েক দিন ধরেই পশ্চিমবঙ্গ এবং ঝাড়খণ্ডে টানা বৃষ্টি হয়ে চলেছে। আর এই সময়ে মাইথন, পাঞ্চেত ও তেনুঘাট জলাধার থেকে প্রায় দু’লাখ কিউসেক জল ছেড়েছে ডিভিসি, যার জেরেই রাজ্যের হাওড়া, হুগলি, পূর্ব ও পশ্চিম বর্ধমান, বীরভূম এবং পশ্চিম মেদিনীপুরে বন্যা পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে।

এ দিন প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ফোনে কথার বলার সময় মমতা সরাসরি ম্যানমেড বন্যার কথা উল্লেখ করে বলেন, “ডিভিসি ৫৪ হাজার কিউসেক জল ছাড়া হবে জানিয়ে দু’লক্ষ কিউসেক জল ছেড়়েছে। কেন্দ্রীয় সরকার ডিভিসির সংস্কার করছে না বলেই এই সমস্যা। পলি জমে নাব্যতা নষ্ট হয়েছে ডিভিসির”।

খবর অনলাইন-এর অন্যান্য প্রতিবেদন পড়ুন এখানে: khaboronline.com

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন