বাড়ির পোষ্যটিকে একা রেখে বেরোতে মন চায় না বলে বাড়ি থেকে বেরোনোই বন্ধ হয়েছে ? সপ্তাহের শেষে ছুটির দিনটাতেও কাটাতে হচ্ছে বাড়িতে? সামনে পুজোর দিনগুলোতেও  নিশ্চয়ই এভাবে ঘরবন্দি হয়ে কাটাবেন না। আপনার প্রিয় পোষ্যটিকে সঙ্গে নিয়ে ঘুরে আসতেই পারেন টালিগঞ্জ ফাঁড়ির কাছে ‘দ্য লা রুম’  থেকে।  কলকাতার প্রথম পোষ্যবান্ধব রেঁস্তোরা হিসেবে  আলোড়ন তুলেছে এটি। উদ্বোধনের মাসেই ইতিমধ্যে সাফল্যের মুখ দেখছে ‘দ্য লা রুম’ ।

এখানে আসলে আপনার ধারণা পালটাবেই।  নিশ্চিন্তে আপনার সুখ দুঃখের সাথী কুকুরছানাটিকে পাশে বসিয়ে সারতে পারবেন লাঞ্চ কিংবা ডিনার। দুজনের জন্য থাকছে আলাদা মেনু কার্ড, জিভে জল আনা সব পদ।

restaurant-2এমন অভিনব ভাবনা প্রথমবারের জন্য ভেবেছিলেন  অঙ্কুশ ও শ্রুতি। মুলত অঙ্কুশ নিজে পোষ্যঅন্ত প্রাণ। তাই মাথায় প্রথম আসে এমন এক রেস্তোঁরা খোলার ভাবনা  যেখানে পোষ্যরাও  ঘোরাফেরা থেকে খাওয়াদাওয়া সব সারতে পারবে স্বচ্ছন্দে। অঙ্কুশের ভাষায়, “পোষ্য আমার মতো অনেকের কাছেই  সন্তানের মতো। অথচ সোসাইটি থেকে ফ্ল্যাটের বাগান, কোথাও আপনি নিজের পোষ্যকে নিয়ে যেতে পারবেন না। তাই ভাবনাতেই ছিল এমন এক রেস্তোরাঁর যেখানে মানুষের পাশাপাশি বসেই খাবার খেতে পারবে তার পোষ্য’’। আপাতত জায়গা কম থাকায় এই রেস্তোরাঁয় শুধুমাত্র সারমেয়দেরই জায়গা করে দেওয়া গেছে। তবে খুব তাড়াতাড়ি অন্য পোষ্যদের জন্যও জায়গা তৈরি  করতে চান তাঁরা।  বাড়ির চাপে অনেকেরই কুকুর পোষা হয়ে ওঠে না। তাদের মন ভালো করার জন্য থাকছে একটা চমক।  এখানে এলেই আপনার চোখে পড়বে ৮টি  সারমেয়। ৮টিই অঙ্কুশ ও শ্রুতির পোষ্য। মন আর পেট দুই-ই ভরাতে তাই দেরি না করে চলে আসুন ‘দ্য লা রুম’-এ।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here