দুর্যোগের ঘনঘটা। প্রতীকী ছবি: রাজীব বসু

কলকাতা: সপ্তমীর সকাল থেকেই বিক্ষিপ্ত বৃষ্টি হয়েছে কলকাতা-সহ দক্ষিণবঙ্গের বিভিন্ন জায়গায়। রবিবার ভোরসকাল থেকেই মুখভার আকাশের। বেলা গড়ানোর সঙ্গেই কলকাতা-সহ পার্শ্ববর্তী এলাকায় নেমে আসে সন্ধে। সঙ্গে ঝিরঝিরে বৃষ্টি কোথাও কোথাও। আবার মাঝে মাঝেই দেখা যায় সূর্যের ঝলসানি। তবে দুর্যোগের শেষ এখানেই নয়।

আলিপুর আবহাওয়া দফতরের পূর্বাভাস, কলকাতা, হাওড়া-সহ সমগ্র দক্ষিণবঙ্গে বৃষ্টিপাতের আশংকা রয়েছে। গাঙ্গেয় উপকূলবর্তী কলকাতা, হাওড়া, হুগলি, নদিয়া, উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনা, পূর্ব মেদিনীপুরের পাশাপাশি রেহাই পাবে না পশ্চিমের জেলাগুলিও। তবে সর্বত্র একই রকম বৃষ্টিপাত হবে না। কোথাও মাঝারি, কোথাও ভারী বিক্ষিপ্ত বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে।

হাওয়া অফিসের তরফে জানানো হয়েছে, পূর্ব মধ্য বঙ্গোপসাগরে একটি ঘূর্ণাবর্ত তৈরির সম্ভাবনা রয়েছে। পাশাপাশি আগামী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে উত্তর-পূর্ব সংলগ্ন পূর্ব-মধ্য বঙ্গোপসাগরে আরও একটি ঘূর্ণাবর্ত তৈরি হতে পারে। এর প্রভাবে সপ্তমী থেকে দশমী পর্যন্ত দক্ষিণবঙ্গে মাঝারি বৃষ্টির প্রবল সম্ভাবনা।

গত দু’বছর ধরে করোনা মহামারির কারণে একটা ভয়ভীতি লোকের মধ্যে কাজ করেছিল। যার ফলে বেশির ভাগ মানুষই ঘর থেকে বের হননি। আর ২০২১-এ সেই শত্রু অনেকটাই চেনা হয়ে গিয়েছিল। ঠাকুর দেখার জন্য ঘরের বাইরে পা রাখা মানুষের সংখ্যা নিঃসন্দেহে বেড়েছিল, তবে খুব বেশি নয়। আর এ বার একেবারেই সেই পুরোনো ছবি। কিন্তু বাদ সাধছে বৃষ্টির ভ্রুকুটি।

মহাসপ্তমীর রাতে কলকাতা-সহ গোটা দক্ষিণবঙ্গের প্রায় সমস্ত জেলাতেই বৃষ্টিপাতের পূর্বাভাস দিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর। সার্বিকভাবে হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টিতে ভিজবে গোটা দক্ষিণবঙ্গ। এর মধ্যে উপকূলবর্তী ও ওড়িশা লাগোয়া জেলায় মাঝারি থেকে ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। কলকাতা, হাওড়া, উত্তর ২৪ পরগনায় হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টিপাত চলবে।

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন