rail-roko

কলকাতা: সকাল আটটা নাগাদ যাদবপুর স্টেশনে চলছিল ডিওয়াইএফের রেল রোকো কর্মসূচি। কয়েক হাজার যুবক ওই প্রতিবাদ কর্মসূচিতে অংশ নিয়ে যখন অবস্থান বিক্ষোভ করছেন, তখন স্টেশনে ঢোকা একটি ট্রেন কোনো কিছুর পরোয়া না করেই চলতে শুরু করে। ঘটনায় গুরুতর ভাবে আহত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন তিন জন ডিওয়াইএফ সমর্থক। ঘটনার কথা জানিয়ে সংগঠনের দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলা সভাপতি প্রভাত চৌধুরীর অভিযোগ, রেলের এই লা-পরোয়া মনোভাবে কয়েকশো যুবকের প্রাণহানি ঘটতে পারত নিমেষে। কিন্তু সমর্থকরা প্রাণ বাঁচাতে তড়িঘড়ি রেললাইন থেকে সরে আসায় সেই দুর্ঘটনা থেকে রেহাই পান।

সারা দেশব্যাপী রেল পরিষেবা সংক্রান্ত একাধিক দাবিকে সামনে রেখে রেল রোকো কর্মসূচি নিয়েছিল বামপন্থী যুব সংগঠন ডিওয়াইএফআই। গত ১৩ ফেব্রুয়ারি সারা দেশে ওই কর্মসূচি পালন করা হলেও কলকাতায় একটি পরীক্ষা থাকায় পিছিয়ে তা করা হয় শুক্রবার, ১৬ ফেব্রুয়ারি। প্রভাতবাবুর অভিযোগ, যাদবপুর স্টেশনে  শুক্রবারের রেল রোকো কর্মসূচি চলাকালীন অবস্থানকারীদের ওপর ট্রেন চালিয়ে দেয় ট্রেনের ড্রাইভার। অভিযুক্ত ট্রেনচালকের সাময়িক বহিষ্কারের দাবিতে অবরোধ চলছে।  তিন জন সমর্থক গুরুতর আহত অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি।

জানা গিয়েছে, রেলের শূন্যপদে নিয়োগ, পর্যাপ্ত ট্রেন চালানো, বজবজ-নামখানা ট্রেন বাতিল না করা, রেলে যাত্রী পরিষেবা বৃদ্ধি-সহ একাধিক দাবিতে ডিওয়াইএফ এই রেল রোকো কর্মসূচি গ্রহণ করেছিল।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here