কেন্দ্রীয় নিষেধাজ্ঞার বিরুদ্ধে সহায়তা চেয়ে ই-সিগারেট ব্যবসায়ীদের চিঠি মুখ্যমন্ত্রীকে

0
প্রতীকী ছবি

ওয়েবডেস্ক: ই-সিগারেট ব্যবসায়ীদের একটি সংগঠন, কেন্দ্রের সাম্প্রতিক দেশব্যাপী ইলেক্ট্রনিক নিকোটিন ডেলিভারি সিস্টেমগুলিতে (ইএনডিএস) নিষেধাজ্ঞার প্রেক্ষাপটে, পশ্চিমবঙ্গ-সহ অন্যান্য রাজ্য সরকারের উদ্দেশে হস্তক্ষেপ প্রার্থনা করল।

ট্রেন্ডস বা ট্রেড রিপ্রেজেন্টেটিভস অফ ইলেক্ট্রনিক নিকোটিন ডেলিভারি সিস্টেমস (টিআরএনডিএস) দেশের সমস্ত মুখ্যমন্ত্রীকে চিঠি দিয়েছে। সংগঠনটির এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, কমপক্ষে বিজেপি অ-শাসিত রাজ্যগুলির কাছ থেকে জবাব পাওয়ার ব্যাপারে তাঁরা আশাবাদী।

ব্যবসায়ীরা রাজ্য সরকারগুলিকে স্বতন্ত্র ভাবে পরীক্ষা, ই-সিগারেটের প্রভাবগুলি মূল্যায়ন করার এবং একটি “যৌক্তিক” সিদ্ধান্তে আসার আহ্বান জানিয়েছে।

ট্রেন্ডসের কনভেনার প্রবীণ রিখি হিন্দুস্তান টাইমসকে ফোনে বলেন, “স্বাস্থ্য একটি রাষ্ট্রীয় বিষয়। ই-সিগারেট ব্যবহারের বিষয়ে স্বাধীন সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন্য কেন্দ্রের অনুমোদন নেওয়ার ক্ষেত্রে রাজ্য স্বাস্থ্য বিভাগগুলিরও একটি পরীক্ষা ও পর্যবেক্ষণ করা দরকার। আমরা এ বিষয়ে মুখ্যমন্ত্রীদের কাছে চিঠি দিয়েছি এবং কমপক্ষে বিজেপি অ-শাসিত রাজ্যগুলির কাছ থেকে প্রতিক্রিয়া আশা করছি”।

সেপ্টেম্বরে বিজেপির নেতৃত্বাধীন কেন্দ্রীয় সরকার স্বাস্থ্য ঝুঁকির কথা উল্লেখ করে ই-সিগারেট এবং অনুরূপ পণ্য উৎপাদন, আমদানি, বিক্রয় এবং বিতরণ নিষিদ্ধ করে দেয়।

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে আবেদনের প্রসঙ্গে ট্রেন্ডস জানায়, “আমরা পশ্চিমবঙ্গের প্রধান হিসাবে আপনার কাছে অনুরোধ করছি, কেন্দ্রীয় সরকারের সিদ্ধান্তের ব্যাপারে আপনার রাজ্য স্বাস্থ্য বিভাগকে নিজস্ব পরীক্ষা ও পর্যবেক্ষণ করার অনুমতি দেওয়া হোক, যাতে একটি যুক্তিযুক্ত সিদ্ধান্তের মাধ্যমে রাজ্যের সর্বাধিক সংখ্যক লোককে উপকৃত করা যায়। রাজ্যের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, সামগ্রিক তামাক ব্যবহারকারীরা (১৫ বছর বা তার বেশি বয়সি) ৩৬.৮ শতাংশ এবং ১৬.৭ শতাংশ ধূমপায়ী, এটা যথেষ্ট উদ্বেগজনক”।

আরও পড়ুন: উৎসবের মরশুমে সব থেকে বেশি অনলাইন অর্ডার ফিরিয়েছে কলকাতা

ট্রেন্ডস দাবি করেছে, উভয় ধূমপায়ীদের ই-সিগারেটই এর সমাধান হতে পারে, অন্তত, তাঁদের জন্য যারা “কম ক্ষতিকারক বিকল্পের দিকে যেতে চান”।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.