north bengal earthquake

ওয়েবডেস্ক: এক মুহূর্তের জন্য যেন আড়াই বছর আগের নেপাল ভূমিকম্পের সেই দুঃসহ স্মৃতি ফিরে এসেছিল উত্তরবঙ্গে। সাত সকালে ভূমিকম্পে দুলে উঠল গোটা উত্তরবঙ্গ। কোচবিহার থেকে মালদা, কম্পন অনুভূত হল সর্বত্রই।

শনিবার সকাল পৌনে সাতটা নাগাদ এই ভূমিকম্পটি অনুভূত হয়। কম্পনের কেন্দ্রস্থল ছিল ধুবুরির কাছে গৌরীপুরে। তবে কম্পনের তীব্রতা নিয়ে দ্বিমত রয়েছে কেন্দ্রীয় আবহাওয়া দফতর এবং মার্কিন ভূতত্ত্ব সর্বেক্ষণের (ইউএসজিএস)। আবহাওয়া দফতরের মতে এই কম্পনের তীব্রতা ছিল ৫.২, অন্য দিকে ইউএসজিএসের দাবি ৪.৬ তীব্রতার ছিল এই কম্পন।

আরও পড়ুন: ভূমিকম্পে তছনছ হতে পারে ভারতের ২৯টি শহর, রয়েছে পশ্চিমবঙ্গেরও কয়েকটি

তবে কম্পনের কেন্দ্রস্থল পশ্চিমবঙ্গ সীমান্তের কাছে হওয়ায় উত্তরবঙ্গে বেশ ভালো টের পাওয়া গিয়েছে এই কম্পনটি। তুলনায় অনেক বেশি কম্পন অনুভূত হয়েছে কোচবিহারে। তবে জলপাইগুড়ি, শিলিগুড়ি ছাড়াও রায়গঞ্জ, মালদাতেও হালকা অনুভূত হয়েছে এই কম্পন।

এই কম্পনের ফলে কোনো ক্ষয়ক্ষতি না হলেও স্বাভাবিক ভাবেই মানুষের মনে আতঙ্ক ছড়ায়। কম্পন নিয়ে ফেসবুকে পোস্টও করতে শুরু করেন অনেকে।

উল্লেখ্য, অসম-সহ সমগ্র উত্তরপূর্ব ভারত অতি-তীব্র ভূমিকম্পপ্রবণ অঞ্চল হিসেবে চিহ্নিত। বারংবার ছোটোখাটো ভূমিকম্প এই অঞ্চলে লেগেই থাকে। এর মধ্যেই কয়েকটি বড়ো ধরনের ভূমিকম্পও ঘটে যায়, যেমনটি হয়েছিল ২০১৬ সালের ৪ জানুয়ারি। সে দিন ৬.৭ মাত্রার ভূমিকম্পে দুলে উঠেছিল গোটা পূর্ব ভারত। মণিপুর কেন্দ্রস্থল থাকা ওই কম্পনের প্রভাবে উত্তর-পূর্ব ভারতে ভালোই ক্ষয়ক্ষতি হয়েছিল।

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন