কসবা ভুয়ো ভ্যাকসিনকাণ্ডে মূল অভিযুক্ত দেবাঞ্জন দেব। পাশে ভুয়ো পরিচয়পত্র

খবর অনলাইন ডেস্ক: রাজ্যে ভুয়ো ভ্যাকসিন চক্রের হদিশ মিলতেই একের পর এক প্রতারণার ঘটনা সামনে আসছে। এই ঘটনায় জড়িত কাউকে রেয়াত করা হবে না বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। পাশাপাশি এই কাণ্ডে সিবিআই তদন্তের দাবি জানিয়ে হাইকোর্টে দায়ের হয়েছে মামলা। এমন পরিস্থিতিতে তৎপর হল কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ED)।

 ইতিমধ্যে ভুয়ো ভ্যাকসিন কেলেঙ্কারির তদন্তে বিশেষ তদন্তকারী দল (SIT) গঠন করেছে কলকাতা পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগ। মূল অভিযুক্ত দেবাঞ্জন দেব এবং তার তিন সহযোগীকে গ্রেফতার করে পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদ করেছে। সূত্রের খবর, কলকাতা পুলিশের কাছে ভুয়ো ভ্যাকসিনকাণ্ডে দায়ের হওয়া সমস্ত মামলার তথ্য চেয়ে পাঠিয়েছে ইডি।

সূত্রটি আরও জানিয়েছে, এ ব্যাপারে কলকাতা পুলিশকে ই-মেল করেছে ইডি। জানতে চাওয়া হয়েছে, কোন কোন থানায়, ক’টি এফআইআর দায়ের হয়েছে? দেবাঞ্জন গ্রেফতার হওয়ার পর এফআইআরের সব কপিও চেয়ে পাঠানো হয়েছে। পাশাপাশি তদন্তে কী কী তথ্য মিলেছে, সে সবও জানতে চেয়েছে ইডি।

ইডির এই পদক্ষেপ থেকেই ইঙ্গিত, তথ্য সংগ্রহ করে ভুয়ো ভ্যাকসিনকাণ্ডে তারা আর্থিক প্রতারণার মামলা রুজু করতে পারে।

পাশাপাশি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন, এই ঘটনায় কাউকে রেয়াত করা হবে না। একই সঙ্গে তিনি আশ্বাস দেন, যারা ভুয়ো ভ্যাকসিন নিয়েছিলেন, তাঁদের ফের টিকা দেওয়ার ব্যবস্থা দেওয়া হবে। টিকাপ্রাপ্তদের স্বাস্থ্যের দিকে বিশেষজ্ঞ কমিটি খেয়াল রাখছে বলেও জানান তিনি।

আরও পড়তে পারেন: নারদ মামলায় মুখ্যমন্ত্রীর হলফনামা গ্রহণ নিয়ে বুধবার রায় দিতে পারে কলকাতা হাইকোর্ট

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন