kolkata rain low pressure
কালীপুজোয় কি এরকম আকাশ থাকবে? নিজস্ব চিত্র

কলকাতা: বুধবার থেকে আবহাওয়া পরিষ্কার হওয়ার কথা ছিলই, কিন্তু সেটা যে এতো তাড়াতাড়ি হয়ে যাবে সেটা আন্দাজই করা যায়নি। তাই বুধবার সকালের কলকাতার আকাশ দেখে চমৎকৃত আবহাওয়া বিশেষজ্ঞরা। যদিও বৃষ্টির সম্ভাবনা এখনও অল্প রয়েছে বলে জানানো হয়েছে।

বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট হওয়া নিম্নচাপের প্রভাবে সোমবার থেকে বিক্ষিপ্ত ভাবে হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টি হল কলকাতা এবং তার পার্শ্ববর্তী অঞ্চলে। নিম্নচাপের ক্ষমতা বেশি ছিল না বলে রাজ্যের পশ্চিমাঞ্চলে বেশি বৃষ্টি দিতে পারেনি। কিন্তু বুধবার সকাল থেকেই সেই নিম্নচাপের প্রভাব কাটতে শুরু করে দিয়েছে।

আসলে ওড়িশা-পশ্চিমবঙ্গ উপকূল লাগোয়া বঙ্গোপসাগরে তাপমাত্রা কমে যাওয়ায় নিম্নচাপ তৈরি হওয়ার পরেও তা বেশি শক্তি বৃদ্ধি করতে পারেনি। বরং দুর্বল হয়ে সমুদ্রের মধ্যেই বিলীন হয়ে যাচ্ছে সে। দক্ষিণবঙ্গে মেঘাচ্ছন্ন আকাশ ছাড়া খুব বেশি বৃষ্টি দেওয়ার ক্ষমতা এই নিম্নচাপের ছিল না। তাই যে টুকু বৃষ্টি হয়েছে, উপকূলবর্তী অঞ্চলেই হয়েছে।

বুধবারের কী সম্ভাবনা?

বেসরকারি আবহাওয়া সংস্থা ওয়েদার আল্টিমার তরফ থেকে বলা হয়েছে, দক্ষিণবঙ্গের পরিমণ্ডলে জলীয় বাষ্প রয়ে যাওয়ার ফলে বুধবারও দুপুরের দিকে বিক্ষিপ্ত বৃষ্টি হতে পারে। তবে উপকূলবর্তী অঞ্চলেই বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা বেশি। শুক্রবার থেকে আকাশ পুরোপুরি পরিষ্কার হয়ে যাবে বলে জানানো হয়েছে।

শীত এখনই নয়

তবে নিম্নচাপের প্রভাব কাটলেও এখনই শীত পড়ার কোনো সম্ভাবনা নেই বলেই জানিয়েছেন ওয়েদার আল্টিমার কর্ণধার রবীন্দ্র গোয়েঙ্কা। প্রথমত, বাতাসে এখনও জলীয় বাষ্প থেকে যাওয়ার ফলে উত্তুরে হাওয়া ঢুকতে পারছে না। দ্বিতীয়ত, উত্তর ভারতে একটি পশ্চিমী ঝঞ্ঝার ফলে সেখানে বাড়ছে সর্বনিম্ন পারদ। ফলে রাজ্যে এখনই তাপমাত্রা খুব একটা বেশি কমবে না। কালীপুজোর সময় থেকে তাপমাত্রা ফের কমতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।

কাশ্মীর-হিমাচলে তুষারপাতের সম্ভাবনা

এ বছর এমনিতেই আগেভাগে তুষারপাত শুরু হয়ে গিয়েছে উত্তর ভারতে। ফের একদফা তুষারপাতের সম্ভাবনা জারি করা হয়েছে। এই মুহূর্তে কাশ্মীরে একটি শক্তিশালী পশ্চিমী ঝঞ্ঝার আগমন ঘটছে। যার ফলে আগামী ৪৮ ঘণ্টায় কাশ্মীরে প্রবল বৃষ্টির সঙ্গে বিক্ষিপ্ত তুষারপাত হতে পারে বলে জানিয়েছে কেন্দ্রীয় আবহাওয়া দফতর। হালকা তুষারপাত হতে পারে হিমাচলেও। অন্যদিকে হালকা বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে উত্তরাখণ্ডের জন্য।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here