central force
একশো শতাংশ বুথে কেন্দ্রীয় বাহিনী মোতায়েন করেও অশান্তি থামেনি

ওয়েবডেস্ক: শেষ দফার ভোটের আগে কুইক রেসপন্স টিম বা কিউআরটি নিয়ে সিদ্ধান্ত বদল করল নির্বাচন কমিশন। রবিবারের ভোটে কিউআরটি পরিচালনা করবেন পুলিশ আধিকারিকরাই। এমনই জানিয়েছেন এ রাজ্যে কমিশনের বিশেষ পর্যবেক্ষক অজয় নায়েক।

উল্লেখ্য, বিক্ষিপ্ত কিছু হিংসার ঘটনা ছাড়া এ রাজ্যের ছ’ দফার ভোট মোটের ওপরে শান্তিপূর্ণ ছিল। কিন্তু একাধিক জায়গায় কেন্দ্রীয় বাহিনীর বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে। কিছু বুথে গুলিচালনা, হাওড়ার প্রার্থী প্রসূন বন্দ্যোপাধ্যায়কে ‘মারা’, কিছু কিছু জায়গায় বিজেপির হয়ে ভোটপ্রচারেরও অভিযোগ উঠেছিল কেন্দ্রীয় বাহিনীর বিরুদ্ধে। এই ব্যাপারে একাধিকবার সরব হয়েছে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তথা তৃণমূল নেতৃত্ব।

যদিও কিউআরটি নিয়ে সিদ্ধান্ত বদলের পেছনে এই অভিযোগগুলি কারণ নয় বলেই মনে করছে সংশ্লিষ্ট মহল। কারণটি অন্য। মঙ্গলবার রাজ্য নির্বাচন কমিশনের সিইও আরিজ আফতাবকে একটি চিঠি দিয়েছিলেন সদ্যপ্রাক্তন স্বরাষ্ট্রসচিব অত্রি ভট্টাচার্য। তাঁর বক্তব্য ছিল, কেন্দ্রীয় বাহিনীর কুইক রেসপন্স টিম সঠিক ভাবে কাজ করতে পারছে না। যেখানে গণ্ডগোল হচ্ছে, সেখানে ঠিকমতো পৌঁছোতে পারছে না। কারণ কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ানদের এলাকা সম্পর্কে কোনো ধারণা নেই। চিঠিতে বলা হয়েছিল, কুইক রেসপন্স টিমে যদি স্থানীয় পুলিশকর্মীদের রাখা না হয়, তা হলে সমস্যা মিটবে না।

আরও পড়ুন বিজেপির হয়ে প্রচারে নামলেন ‘বিদ্যাসাগর!’

অত্রিবাবুকে নিজের পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হলেও, তাঁর অভিযোগের গুরুত্ব বুঝতে পেরেছে নির্বাচন কমিশন। আর তাই শেষ দফার ভোটে কিউআরটি পরিচালনার ক্ষেত্রে রাজ্য পুলিশের আধিকারিকদের ওপরেই ভরসা রাখল নির্বাচন কমিশন।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here