election commission

কলকাতা: নির্বাচন কমিশন কারণ দর্শানোর নোটিস পাঠালো রাজ্যের দুই মন্ত্রী শুভেন্দু আধিকারী এবং রবীন্দ্রনাথ ঘোষকে। প্রচারে আপত্তিকর শব্দ প্রয়োগের জন্য উপযুক্ত কারণ দর্শানোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছে এই দুই মন্ত্রীকে।

পঞ্চায়েত ভোট নিয়ে রাজ্য নির্বাচন কমিশন যে ভাবে একের পর এক জটিলতায় জড়িয়ে পড়েছে তাতে এই সাংবিধানিক সংস্থার নিরপেক্ষতা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলি। এমন অবস্থায় দুই প্রভাবশালী মন্ত্রীকে নোটিস পাঠানো আদতে যে নিয়মরক্ষার তাগিদে ছাড়া অন্য কিছু নয়, তা মনে করছে বিরোধীরা।

পরিবহণমন্ত্রী শুভেন্দুবাবু একটি সভায় প্রকাশ্যে বলেছিলেন, বিরোধী শূন্য জেলা পরিষদ তুলে দিতে পারলে পাঁচ কোটি টাকা পুরস্কার দেওয়া হবে। তাঁর এই প্রতিশ্রুতিকে নিয়ম-বিরুদ্ধ আখ্যা দিয়ে কমিশনে অভিযোগ করে বিজেপি। আবার উত্তরবঙ্গ উন্নয়নমন্ত্রী রবীন্দ্রনাথবাবুর উপর পুলিশের উদ্দেশে কয়েকটি আপত্তিকর কথা বলার অভিযোগ রয়েছে। এই অভিযোগটিও কমিশনের নজরে নিয়ে আসে বিজেপি। যদিও দুই মন্ত্রীই এখনও পর্যন্ত কমিশনের কোনো চিঠি পাননি বলে দাবি করেছেন।

একই সঙ্গে প্রকাশ্য সভায় আপত্তিকর শব্দ ব্যবহারের অভিযোগে চিঠি পাঠানো হয়েছে বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষকে। তিনি উত্তর ২৪ পরগনার একটি সভায় অনাথ করে দেওয়ার হুমকি দিয়ে সংবাদ মাধ্যমের শিরোনামে চলে আসেন।

সিপিএমের এক নেতা বলেন, কমিশন নিজের ক্ষমতা মতো ব্যবস্থা নেবে এটাই কাম্য। কিন্তু রাজ্যের মানুষ কমিশনের সব ক’টি পদক্ষেপই দেখেছেন। ফলে এগুলো আসলে ‘আই ওয়াশ’ ছাড়া অন্য কিছু নয়। নির্বাচন ঘোষণা থেকে শুরু করে আজ পর্যন্ত কমিশনের সমস্ত কার্যকলাপ নিয়ে খোদ হাইকোর্টও প্রশ্ন তুলছে। ফলে দু’-এক জন নেতাকে এ ভাবে চিঠি পাঠালেই সব দায় সারা হয়ে যায় না।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here