Swapna Burman
ছবি: প্রতীকী

কলকাতা: এশিয়ান গেমস ২০১৮-য় সোনা জয়ী স্বপ্না বর্মনকে নিয়ে গর্বে ফুটছে বাংলা। ইতিমধ্যেই জলপাইগুড়ির মেয়ে স্বপ্নার জন্য বিশেষ উপহার ঘোষণা করছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। গত বৃহস্পতিবার সকালে স্বপ্নার মায়ের সঙ্গে ফোনে কথা বলেন মুখ্যমন্ত্রী। সেখানে স্বপ্নাকে ১০ লক্ষ টাকার আর্থিক সাহায্য এবং একটি চাকরির প্রস্তাব দেন মুখ্যমন্ত্রী। পাশাপাশি অ্যাথলিট সংস্থার পক্ষ থেকেও যথেষ্ট উৎসাহ দেখানো হয়েছে। এবার সেই তালিকায় জুড়ে গেল রাজ্য নির্বাচন কমিশনের নাম।

আগামী বছর দেশের সাধারণ নির্বাচন। তার আগে জোর কদমে চলছে ভোটার তালিকা সংশোধন ও নতুন নাম তোলার প্রস্তুতি। এই সময় রাজ্য নির্বাচন কমিশনের তরফে ভোটারদের (বিশেষ করে নতুন ভোটারদের) উৎসাহ দিতে প্রতি বারই ক্রীড়া, সংগীত-সহ বেশ কয়েকটি ক্ষেত্রের পরিচিত মুখকে তুলে ধরা হয় রাজ্যের ‘আইকন’ হিসাবে। তাঁদের দিয়ে প্রচার চালাতে তৈরি করা হয় অডিও-ভিস্যুয়াল বিজ্ঞাপন। তেমন একটি বিজ্ঞাপনেই বাংলার সোনার মেয়ে স্বপ্নাকে আইকন হিসাবে তুলে ধরতে চাইছে নির্বাচন কমিশন।

রাজ্য নির্বাচন কমিশন সূত্রে খবর, স্বপ্নার নাম নিয়ে ইতিমধ্যেই আলোচনা হয়েছে। আধিকারিকরা মনে করেন, স্বপ্নাকে আইকন হিসাবে তুলে ধরতে তাঁর সম্মতি সর্বাগ্রে আদায় করা বাঞ্ছনীয়। ফলে ইন্দোনেশিয়ার জাকার্তা থেকে কলকাতায় ফিরলে তাঁর কাছে প্রস্তাবটি রাখতে চায় কমিশন। তিনি সম্মত হলে এ বিষয়ে এগোতে কোনো বাধা থাকবে না।


আরও পড়ুন: স্বপ্নার স্বপ্নপূরণের দৃশ্য দেখে কান্নায় ভেঙে পড়লেন মা

উল্লেখ্য, মূলত রাজনৈতিক পরিচয় নেই এমন কোনো ব্যাক্তিত্বকেই আইকন হিসাবে তুলে ধরে নির্বাচন কমিশন। অতীতে বেশ কয়েক জন জনপ্রিয় ব্যক্তিত্বকে আইকন হিসাবে তুলে ধরতে গিয়ে বহুবিধ বিতর্কের সম্মুখীন হতে হয়েছে নির্বাচন কমিশনকে। তবে স্বপ্নাকে রাজ্যের নির্বাচনী আইকন হিসাবে তুলে ধরলে তেমন কোনো অনভিপ্রেত ঘটনার সম্মুখীন হতে হবে না বলেই ধারণা করা যেতে পারে।

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন