শিলিগুড়ি: জুনে অতিবৃষ্টিতে জেরবার হয়েছিল উত্তরবঙ্গ। জুলাই পড়তেই বদলে গেল ছবিটা। তীব্র গরমের রীতিমত হাঁসফাঁস অবস্থা উত্তরবঙ্গের। পারদ প্রায় চল্লিশের কাছাকাছি চলে গিয়েছে কিছু জায়গায়। পড়ুয়াদের রেহাই দিতে স্কুলের সময় পরিবর্তনেরও দাবি উঠছে।

বৃহস্পতিবার কোচবিহারে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৩৮.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস। জলপাইগুড়িতে পারদ ছিল ৩৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। শিলিগুড়িতে কিছুটা কম রেকর্ড করা হয় তাপমাত্রা (৩৬.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস)। কিন্তু রায়গঞ্জ, বালুরঘাট, মালদহে গরমের দাপট আরও বেশি। সেখানে তাপমাত্রা ৩৯ ডিগ্রি ছাড়িয়ে গিয়েছে।

শুধু সমতলেই নয়, পাহাড়েও পারদ ঊর্ধ্বমুখী। বৃহস্পতিবার দার্জিলিংয়ে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ২৫ এবং কালিম্পংয়ে ৩০ ডিগ্রি পর্যন্ত উঠে গিয়েছে। তীব্র এই গরমের দাপটে সাধারণ মানুষ অতিষ্ঠ। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গেই বাড়ছে রোদের তেজ। বাড়ির বাইরে থাকাই যাচ্ছে না।

অথচ ছবিটা জুনে একেবারেই অন্যরকম ছিল। দফায় দফায় মাত্রাতিরিক্ত বৃষ্টিতে জেরবার হয়ে গিয়েছিল পাহাড় এবং ডুয়ার্সের সমতল। অন্তত দু’বার বন্যা পরিস্থিতি তৈরি হয়েছিল। এই তীব্র বৃষ্টির ফলে কৃষিকাজ শুরুই করা যায়নি। এর পর তীব্র গরম যখন পড়ল, তখনও কৃষিকাজ শুরু করা গেল না। সব মিলিয়ে উত্তরবঙ্গে চাষেরও ভয়াবহ ক্ষতির আশংকা রয়েছে।

পাশাপাশি, স্কুলের সময় পরিবর্তনের দাবি উঠছে বিভিন্ন মহল থেকে। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, গত মে মাসে দক্ষিণবঙ্গে প্রবল গরমের কারণে কার্যত অহেতুক ছুটি দেওয়া হয়েছিল উত্তরবঙ্গের স্কুলেও। কিন্তু তখন সেখানে সে ভাবে গরমই পড়েনি। অনেকেই দাবি করেছিলেন উত্তরবঙ্গের জন্য এই ছুটি তোলা থাকুক, গরম পড়লে দেওয়া যাবে। কিন্তু এখন যেহেতু দক্ষিণবঙ্গে গরম কমে গেছে, তাই উত্তরবঙ্গের গরমের কথা ভাবা হচ্ছে না বলে অভিযোগ অনেকের।

গত দু’সপ্তাহ ধরে উত্তরবঙ্গে মৌসুমি অক্ষরেখা নেই। সে মধ্য ভারত দিয়ে বিস্তার করছে। পাশাপাশি বৃষ্টি নামানোর মতো কোনো ঘূর্ণাবর্তও উত্তরবঙ্গে তৈরি হয়নি। সে কারণে বৃষ্টির দেখা নেই উত্তরে আর তাই এমন ভয়াবহ ভাবে বাড়ছে পারদ। শুধু উত্তরবঙ্গই নয়, সমগ্র উত্তরপূর্বেই একই অবস্থা।

গুয়াহাটিতে বৃহস্পতিবার পারদ ছিল ৩৮.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস। গত মাসে বন্যায় ভেসে যাওয়া লামডিংয়ে তাপমাত্রা উঠে গিয়েছে ৩৮ ডিগ্রি সেলসিয়াসে। সব থেকে ভয়াবহ পরিস্থিতি শিলচরে। সেখানে বৃহস্পতিবার তাপমাত্রা ছিল ৩৯.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস বেশি।

আরও পড়তে পারেন:

‘স্বাধীনতা নয়, চাই…’ লাদাখ সফরের প্রাক্কালে চিনকে বিশেষ বার্তা দিলেন দলাই লামা

‘কেউ খবরের কাগজ পড়লেও তাঁকে দোষী বলবেন!’ এনআইএকে তুলোধোনা করলেন প্রধান বিচারপতি এনভি রমনা

বিরোধী জোটে ফের ভাঙন, এনডিএ-র রাষ্ট্রপতি পদপ্রার্থী দ্রৌপদী মুর্মুকে সমর্থন জেএমএ-এর

ভালো খবর! পশ্চিমবঙ্গে ৩ হাজার ছাড়ালেও কলকাতায় করোনা সংক্রমণ নামল পাঁচশোর ঘরে

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন