সোমবার থেকে তীব্র গরমের আশঙ্কা রাজ্য জুড়ে

0

ওয়েবডেস্ক: গরম কালে আবহাওয়ার পূর্বাভাস দেওয়া বড়োই জটিল হয়ে যাচ্ছে। আবহাওয়ার পরিস্থিতি এমনই যে ভিরমি খেয়ে যাচ্ছেন আবহাওয়া বিশেষজ্ঞরা। ঝড়বৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়েও বলার মতো কিছুই হচ্ছে না। যেমন হল শুক্রবার এবং শনিবার। ঝড়বৃষ্টি হওয়ার কথা ছিল সমগ্র দক্ষিণবঙ্গ জুড়ে, কিন্তু হল শুধু দুই মেদিনীপুর এবং বিক্ষিপ্ত ভাবে পশ্চিমাঞ্চলের জেলাগুলির কিছু অংশে।

রবিবারও খুব সামান্য হলেও বৃষ্টির পরিস্থিতি একটা রয়েছে তবে সোমবার থেকে উধাও হয়ে যাবে সেটি। বরং ছড়ি ঘোরানো শুরু করবে সূর্য। এমনিতেই বিভিন্ন বিদেশি আবহাওয়া সংস্থা জানিয়ে দিয়েছে যে সামনের সপ্তাহে তীব্র গরম পড়বে দেশের অধিকাংশ জায়গায়। সেই মতের সঙ্গে একমত হয়েছেন এখানকার আবহাওয়া বিশেষজ্ঞরাও।

বেসরকারি আবহাওয়া সংস্থা ওয়েদার আল্টিমার কর্ণধার রবীন্দ্র গোয়েঙ্কা বলেন, মধ্য ভারতের তীব্র গরমের প্রভাবে গরম বাড়বে দক্ষিণবঙ্গে। তিনি বলেন, “পশ্চিমী জেট স্ট্রিমের জন্য মধ্যভারত থেকে গরম হাওয়া বয়ে এসে দক্ষিণবঙ্গের বায়ুমণ্ডলে ঢুকবে। এর ফলে বাড়বে তাপমাত্রা।” সোমবার থেকে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত এই পরিস্থিতি থাকতে পারে।

পশ্চিমাঞ্চলের জেলা, অর্থাৎ বর্ধমান, বাঁকুড়া, পুরুলিয়া, দুই মেদিনীপুর, ঝাড়গ্রাম, বীরভূম এবং উত্তরবঙ্গের দুই দিনাজপুর এবং মালদহে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৪১ ডিগ্রিতে উঠে যেতে পারে। অন্য দিকে কলকাতা-সহ দক্ষিণবঙ্গের পূর্বাঞ্চলের জেলা অর্থাৎ হাওড়া, হুগলি, দুই ২৮ পরগণা, নদিয়া, মুর্শিদাবাদে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৯ ডিগ্রি পৌঁছোতে পারে। তবে ‘রিয়েল ফিল’ বা প্রকৃত অনুভূতির তাপমাত্রা চল্লিশ ডিগ্রি পেরিয়ে যেতে পারে বলে জানিয়েছেন রবীন্দ্রবাবু। রেহাই পাবে না উত্তরবঙ্গের সমতলের জেলাগুলিও। সেখানেও তাপমাত্রা পৌঁছে যেতে পারে ৩৭ ডিগ্রিতে।

উল্লেখ্য, যে সময়ে এই গরম পড়ার কথা বলা হচ্ছে সে সময়ে মধ্য ভারতে তাপমাত্রা ৪২ ডিগ্রি ছাড়িয়ে যেতে পারে।

তবে এই গরমের পেছনেই রয়েছে স্বস্তির সংবাদ। রবীন্দ্রবাবু মনে করেন, এই অত্যধিক গরমকে কাজে লাগিয়েই সামনের সপ্তাহের শেষ দিকে নামবে স্বস্তির বৃষ্টি। অনেকটাই কমবে তাপমাত্রা। তাঁর কথায়, “উত্তরপ্রদেশ, বিহার, ঝাড়খণ্ডে তীব্র গরমের ফলে অনেকগুলি ঘূর্ণাবর্ত তৈরি হবে। এই ঘূর্ণাবর্তটি উত্তর-পূর্ব ভারত থেকে জলীয় বাষ্প নিয়ে আসবে। আবার ঠিক একই সময়ে বঙ্গোপসাগরের ওপরে একটি বিপরীত ঘূর্ণাবর্ত তৈরি হবে, যে প্রচুর জলীয় বাষ্প দক্ষিণবঙ্গের বায়ুমণ্ডলে ঢোকাবে।” এই সব অনুঘটককে সঙ্গী করেই আগামী শুক্রবার থেকে আবহাওয়া ফের মনোরম হবে বলে জানিয়েছেন রবীন্দ্রবাবু।

সুতরাং একটা ব্যাপারে নিশ্চিত, প্রথমে তীব্র গরম, পরে স্বস্তির বৃষ্টি, আগামী সপ্তাহে অস্থির আবহাওয়া থাকবে রাজ্য জুড়ে।

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন