বৃষ্টি বাড়তেই পূর্ব বর্ধমানে জোর কদমে শুরু ধান রোয়ার কাজ

0

ওয়েবডেস্ক: মোক্ষম সময়ে বৃষ্টি বেড়েছে দক্ষিণবঙ্গ জুড়ে। তাতেই হাসি ফুটেছে চাষিদের মুখে। পূর্ব বর্ধমান জেলার একটা বড়ো অংশে জোর কদমে শুরু হয়ে গিয়েছে ধান রোয়ার কাজ। জেলার কৃষিকর্তারা জানাচ্ছেন, বৃষ্টির সঙ্গেই সেচখালেও জল ছাড়া হয়েছে। ফলে খরিফ মরসুমে ধান রোপণের লক্ষ্যমাত্রায় পৌঁছোতে নির্দিষ্ট সময়ের চেয়ে বড়জোর এক সপ্তাহ বেশি লাগবে।

পূর্ব বর্ধমানে জুনের শেষে ঘাটতি ছিল ৫৭%, সেটা এখন ২৯ শতাংশে নেমে এসেছে। ২ অগস্ট পর্যন্ত জেলা জুড়ে ৭৬ হাজার হেক্টর জমিতে ধান রোয়া হয়েছিল। গত শুক্রবার জেলায় ধান চাষের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ২ লক্ষ ৭৬ হাজার ৪৭৮ হেক্টর। অর্থাৎ গত এক সপ্তাহে ২ লক্ষ হেক্টর জমিতে ধান রোপণ করেছেন চাষিরা। কৃষি দফতরের দাবি, গত বার ৯ অগস্ট পর্যন্ত ৩ লক্ষ ৪৪ হাজার হেক্টর জমিতে আমন চাষ হয়েছিল। বৃষ্টির ঘাটতির জন্যে এ বারও ৩ লক্ষ ৭৮ হাজার হেক্টর জমিতে ধান চাষের লক্ষ্যমাত্রা রেখেছে কৃষি দফতর। তবে সেচখালে জল থাকায় প্রতি দিন ধান রোপণের এলাকা বাড়বে, মনে করছেন কৃষিকর্তারা।

আরও পড়ুন ‘বিশ্ব যখন অনিশ্চিত ভবিষ্যতের দিকে তাকিয়ে, তখন স্থিতিশীল হওয়া উচিত ভারত-চিন সম্পর্ক’

তবে কৃষকদের একটা ব্যাপার কিছুটা চিন্তায় রেখেছে। তা হল বৃষ্টি যদি বন্ধ হয়ে যায় আর জল ছাড়া যদি বন্ধ হয়ে যায়। তবে আবহাওয়ার পূর্বাভাস এ বার যথেষ্ট উৎসাহব্যঞ্জক। দক্ষিণবঙ্গের পাশাপাশি ঝাড়খণ্ডেও জোর বৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়ে রাখা হয়েছে। ফলে জল ছাড়ার পরিমাণ আর কমবে না বলেই মনে করা হচ্ছে। সেচ দফতর সূত্রে খবর, ৩১ অক্টোবর পর্যন্ত দফায় দফায় জল ছাড়ার ব্যাপারে আশ্বস্ত করেছে ডিভিসি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here