Father

ওয়েবডেস্ক: বাবাকে মারার অভিযোগে ধৃত প্রদীপ বিশ্বাসকে বৃহস্পতিবার তোলা হল বারাসত আদালতে। সেখানে প্রহৃত বাবা মানিকলাল বিশ্বাস নিজেই ছেলের জামিনের আবেদন জানান। তিনি বলেন, তাঁর ছেলেকে জামিন না দেওয়া হলে তিনি আত্মহত্যা করবেন। গত বুধবার সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল ভিডিওয় দেখা গিয়েছিল, ছেলে প্রদীপ নিজের নবতিপর বৃদ্ধ বাবাকে কী ভাবে চড়-থাপ্পড় লাগাচ্ছেন মা-কে মিষ্টি খেতে দেওয়ার অপরাধে।

পুরসভার কর্মী প্রদীপকে নেটদুনিয়া গত মঙ্গলবার তোলা ওই ভিডিওয় যারপরনাই গালিগালাজ করেছে। তাঁর উপযুক্তি শাস্তি চাওয়ার পাশাপাশি তীব্র ধিক্কার জানিয়ে অশ্রাব্য ভাষায় ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন নেটিজেনরা। গত বুধবার সন্ধ্যায় প্রদীপকে গ্রেফতার করা হয়। তবে পিতৃস্নেহের বশবর্তী হয়ে বৃদ্ধ মানিকলাল তাঁর ছেলের জামিনের জন্য যে ভাবে আবেদন জানালেন, তাতেও তাঁকে দোষারোপ করতে ছাড়ছেন না কেউ কেউ।

ওই দিনই মানিকলাল দাবি করেছিলেন, “তাঁর ছেলে কুলাঙ্গার। এমন সন্তান যেন কারও না থাকে”। তবে আদালতে পৌঁছে তিনি নিজের আবেগে বাঁধ দিতে পারেননি। তিনি বিচারকের উদ্দেশে বলেন, “আমি তো অন্যায় করেছি। ও আমার এক মাত্র ছেলে। ওকে ছাড়া আমার চলবে না। একই সঙ্গে তিনি হুমকি দেন, প্রদীপকে না ছাড়া হলে তিনি আত্মহত্যা পর্যন্ত করবেন”।

অবশেষে গ্রেফতার হল সেই মানবরূপী ‘দানব’ সন্তান! স্বস্তি নেটদুনিয়ায়

বাবার মুখে এমন মন্তব্য শোনার পর বিচারকও স্থির থাকতে পারেননি। তিনি জনতার আদালতে অপরাধী ছেলের জামিন মঞ্জুর করেন।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here