মুর্শিদাবাদ মেডিক্যাল কলেজে ভয়াবহ আগুন, মৃত ২, সিআইডি তদন্তের নির্দেশ

0

শনিবার দুপুর সাড়ে বারোটা নাগাদ ভয়াবহ আগুন লাগল মুর্শিদাবাদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে। আগুন লাগার খবরে হুড়োহুড়ি পড়ে যায় রোগী এবং হাসপাতাল কর্মীদের মধ্যে। পদপৃষ্ট হয়ে দুই হাসপাতাল সহায়িকার মৃত্যু হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। আগুনে কোনও শিশুর মৃত্যু হয়নি বলে সরকারি ভাবে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। মৃতদের পরিবারকে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছে রাজ্য সরকার।

এ দিন প্রথম আগুন লাগে মেডিসিন বিভাগের পুরুষ ওয়ার্ডে। ওই পুরুষ ওয়ার্ডের ওপরে তিন তলায় শিশুদের এসএনসিইউ বিভাগ, আগুন ছড়ায় সেখানেও। প্রায় পঞ্চাশ জন শিশু-সহ বহু রোগী অসুস্থ হয়ে পড়ে। আতঙ্কিত হয়ে পড়েন হাসপাতালের রোগী-সহ হাসপাতালে উপস্থিত থাকা অন্য সবাই। আগুন লাগার পরপরই একটি লিফট বন্ধ করে দেওয়া হয়। অপরিসর সিঁড়িতে ধাক্কাধাক্কি করে আতঙ্কিত মানুষ নামতে থাকেন।

ঘটনাস্থলে এসে পৌঁছয় দমকলের একাধিক ইঞ্জিন। উদ্ধারকাজে হাত লাগান রোগীর আত্মীয় ও স্থানীয় মানুষরা। জানলার শিক ভেঙে শিশুদের উদ্ধার করা হয়। ধোঁয়ায় অসুস্থ হয়ে পড়ে বহু শিশু। সিঁড়ি দিয়ে নামার সময় পদপৃষ্ট হয়ে মারা যান দুই হাসপাতাল সহায়িকা। প্রাথমিক ভাবে অনুমান করা হচ্ছে, এসি থেকে শর্ট সার্কিট হয়েই আগুন লাগে। ধোঁয়ায় ভরে যায় চারপাশ। ব্যাহত হয় উদ্ধারকাজ।

জানা যাচ্ছে কোনও রকম অগ্নি নির্বাপণ ব্যবস্থাই ছিল না হাসপাতালে। আগুন লাগার সময় বন্ধ ছিল হাসপাতালের আপৎকালীন দরজা, সেই কারণেই রোগীদের পক্ষে তাড়াতাড়ি বেরিয়ে আসা সম্ভব হয়নি বলে অভিযোগ উঠেছে।

খবর পেয়েই অগ্নিকাণ্ডের তদারকি শুরু করেন মুখ্যমন্ত্রী। ঘটনার তদন্ত করতে একটি কমিটি তৈরির নির্দেশ দেন তিনি। মালদা থেকে একটি চিকিৎসক দল পাঠিয়ে দেওয়া হয় মুর্শিদাবাদ মেডিক্যাল কলেজে। মৃতের পরিবারকে ২ লক্ষ টাকা দেওয়ার কথা ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী। চন্দ্রিমা ভট্টাচার্যের নেতৃত্বে ঘটনাস্থল পরিদর্শনে যাচ্ছে রাজ্যের একটি দল। এই অগ্নিকাণ্ডের সিআইডি তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী।

ছবি এএনআই টুইটার পোস্ট

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন