Sunderban

উজ্জ্বল বন্দ্যোপাধ্যায়, কুলতলি: সুন্দরবনে আবার বাঘের হানায় মৃত্যু হল এক মৎস্যজীবীর। সোমবার ভোরে ঘটনাটি ঘটেছে সুন্দরবনের বেনিফিলির জঙ্গলে।

মৃতের নাম কানাই (কানু) ঘোষ (৪২)। রবিবার সকালে কুলতলির মধ্য গুড়গুড়িয়ার বাসিন্দা কানু ঘোষ, ঝড়ু প্রধান, অমবর মোল্লা, বাপি দাস-সহ ৫ জনের একটি দল পাটা জাল নিয়ে কাঁকড়া ধরতে গিয়েছিলেন। এ দিন ভোরে বেনিফিলির জঙ্গলের ভেতর জাল টানার সময় পিছন থেকে বাঘ হামলা করে। কানুকে টেনে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা চালায়। সঙ্গীরা লাঠি ও নৌকার দাড় নিয়ে বাঘকে ধাওয়া করে। ফলে মারাত্মক জখম অবস্থায় ওই মৎস্যজীবীকে ফেলে রেখে পালায় বাঘ বাবাজি। কুলতলির জয়নগর গ্রামীণ হাসপাতালে আনার পথে মারা যান কানু। কানুর স্ত্রী ও দুটি ছেলে-মেয়ে আছে। মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য মৈপীঠ উপকূল থানায় নিয়ে এসেছে পুলিশ।

Sunderban

কুলতলির মধ্যগুড়িয়ায় এই সংবাদে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। এর আগে গত বুধবার গোসাবার দুলকি গ্রামের দিলীপ মন্দল (৪৫) নামের এক মৎস্যজীবির মৃত্যু হয়েছে বাঘের হানায়।

আরও পড়ুন: পাখি থেকে কুমির- চোরা চালানের মাধ্যম হয়ে উঠেছে ডাকঘর!

ইউনাইটেড ফিশারম্যান সংগঠনের সভাপতি তথা কুলতলির প্রাক্তন বিধায়ক জয়কৃষ্ণ হালদার বলেন, বাঘের হানায় মৃত কানুর পরিবার যাতে সরকারি সাহায্য পায় তার চেষ্টা করা হচ্ছে।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here