কলকাতা: দেশের ছ’টি করোনাভাইরাস (Coronavirus) ‘হটস্পট’ (hotspot) শহর থেকে সরাসরি উড়ান ( direct flights) পরিষেবা স্থগিতের মেয়াদ বাড়িয়ে ৩১ আগস্ট পর্যন্ত করছে পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকার।

লকডাউনের নিয়ম শিথিল হয়ে আনলক পর্যায়ের মধ্যেই রাজ্য নির্দিষ্ট দিনে সম্পূর্ণ লকডাউন জারি করেছে। এমন পরিস্থিতিতে দিল্লি, মুম্বই, চেন্নাই, পুনে এবং অমদাবাদ-সহ ছ’টি রাজ্য থেকে সরাসরি উড়ান পরিষেবার স্থগিতের মেয়াদ বাড়ানোর কথা জানানো হয়েছে অ-সামরিক বিমান পরিবহণ মন্ত্রককে।

আনলক পর্যায়ে নির্দিষ্ট ঘরোয়া বিমান পরিষেবা চালুর পর রাজ্যে করোনা সংক্রমণের পরিস্থিতি বিবেচনা করে প্রথমে এই মেয়াদ নির্ধারিত হয় ১৯ জুলাই পর্যন্ত। পরে তা বাড়িয়ে করা হয় ৩১ জুলাই এবং ১৫ আগস্ট পর্যন্ত। সেই মেয়াদই ৩১ আগস্ট পর্যন্ত বাড়ানোর কথা জানানো হয়েছে।

মন্ত্রকের উদ্দেশে ১০ আগস্ট দিনাঙ্কিত একটি চিঠিতে রাজ্যের স্বরাষ্ট্রসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায় (Alapan Bandyopadhyay) জানিয়েছেন, আগামী ৩১ আগস্ট পর্যন্ত ছ’টি শহর থেকে সরাসরি যাত্রীবাহী বিমান পরিষেবা স্থগিত রাখা হবে।

কোন কোন শহর?

রাজ্যের স্বরাষ্ট্রসচিব অ-সামরিক বিমান পরিবহণ মন্ত্রকের সচিবকে জানিয়েছেন, “আমি আপনাকে অবহিত করছি যে, দিল্লি, মুম্বই, পুনে, চেন্নাই, নাগপুর এবং অমদাবাদ থেকে কলকাতায় আসার উড়ান পরিষেবার উপর স্থগিতাদেশ ৩০ আগস্ট, ২০২০ পর্যন্ত কার্যকর থাকবে”।

[স্বরাষ্ট্রসচিবরে লেখা চিঠি]

সম্পূর্ণ লকডাউনে বন্ধ বিমানবন্দর

এ ছাড়া যে সমস্ত দিনে রাজ্যে সম্পূর্ণ লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে সেই দিনগুলিতেও যাত্রীবাহী উড়ান স্থগিত রাখার আবেদন করা হয়েছিল। সেই আবেদনেও কেন্দ্র সম্মতি দিয়েছে। তাই অগস্ট মাসের যে দিনগুলিতে রাজ্যে সম্পূর্ণ লকডাউন হবে, ওই দিনগুলিও রাজ্যের আর্জি মেনে বিমানবন্দর বন্ধ রাখা হবে।

রাজ্যের করোনা-পরিস্থিতি

গত সোমবার রাজ্যের স্বাস্থ্য দফতর জানায়,এক দিনে রাজ্যে নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ২৯০৫ জন। এর ফলে রাজ্যে এখন মোট করোনা-আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৯৮,৪৫৯। ৪১ জনের মৃত্যু হওয়ায় রাজ্যে মৃতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ২,১০০। সোমবারের পর রাজ্যে মৃত্যুর হার নেমে এসেছে ২.১৩ শতাংশে।

গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে সুস্থ হয়েছেন ৩,২০৮ জন। এর ফলে এখনও পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৭০,৩২৮ জন। রাজ্যে বর্তমানে সক্রিয় রোগী রয়েছেন ২৬,০৩১। রাজ্যে সুস্থতার হার বর্তমানে রয়েছে ৭১.৪৩ শতাংশ।

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন