কুয়াশার দাপট দক্ষিণবঙ্গে, বাড়ল পারদ, শীত ফেরার সম্ভাবনা আর নেই

0

কলকাতা: সোমবার সকালে কুয়াশায় ঢাকল কলকাতা-সহ দক্ষিণবঙ্গের একটা বড়ো অংশের মুখ। কলকাতায় দৃশ্যমানতা ছিল ৫০ মিটারের কম। যে কারণে বিমান চলাচল ব্যাহত হয়। বিমানবন্দর সূত্রে খবর, দৃশ্যমানতা কম থাকায় বেশ কিছু বিমান ছাড়তে দেরি হয়।

এ দিকে, তাপমাত্রাও কিন্তু বেড়ে গিয়েছে। সোমবার সকালে কোলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ১৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। তাপমাত্রাটি ফেব্রুয়ারির এই শেষ সপ্তাহে তুলনায় কিন্তু বেশ কম। তবে এই ঊর্ধ্বমুখী পারদ জানান দিচ্ছে শীত এ বার বিদায় নিতে চলেছে।

তবে এখনও পশ্চিমের জেলাগুলিতে বেশ শীত রয়েছে। পুরুলিয়া, বাঁকুড়া, শ্রীনিকেতনে এ দিন তাপমাত্রা ছিল ১২ ডিগ্রি সেলসিয়াসের আশেপাশে।

এ দিকে, সোমবার ভোরে শহর কলকাতার আকাশ শীতকালের মতোই কুশায়া ঢাকা ছিল। যে কারণে দৃশ্যমানতার সমস্যা তৈরি হয়। রাস্তায় বেরিয়ে সমস্যায় পড়েন গাড়ি চালকরা। ভোরের দিকে বেশ কয়েকটি বিমানের উড়ানে দেরি হয়। উল্লেখ্য, বঙ্গোপসাগর থেকে এগিয়ে আসা জলীয় বাষ্প এবং উত্তর দিক থেকে আসা ঠান্ডা হাওয়ার সংমিশ্রণের ফলে এই কুয়াশার পরিস্থিতি তৈরি হয় দক্ষিণবঙ্গে।

এই ধরনের কুয়াশার বছরের এই সময়ের ক্ষেত্রে খুবই স্বাভাবিক একটা ঘটনা। রবিবার রাজ্যের উপকূলবর্তী অঞ্চলে ঝড়বৃষ্টি হয়। তবে কলকাতায় কিছু হয়নি সে ভাবে। তবে এটা নিশ্চিত করেই বলে দেওয়া যায় যে শীত আর ফিরবে না। তবে আগামী দিনে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা হয়তো একটু কমে ১৬ ডিগ্রি হতে পারে। বসন্ত যে পুরোপুরি আসর জমাতে চলেছে, তা বলাই বাহুল্য।

আরও পড়তে পারেন:

ইউক্রেনে যুদ্ধবিরতিতে সম্মতি রাশিয়া-ফ্রান্সের, মার্কিন প্রেসিডেন্টের সঙ্গে বৈঠক হতে পারে পুতিনের

খই-গুড়ের রসায়নে ভোটের আঁচ, প্রতীকে সেজেছে জয়নগরের মোয়া

৯ মাসে টিকিট না কেটে পাকড়াও ১.৭৮ কোটি যাত্রী, জরিমানা বাবদ রেলের ভাঁড়ারে হাজার কোটি

পঞ্জাবে ৫টা পর্যন্ত ভোটের হার ৬৩ শতাংশ, কমল উত্তরপ্রদেশে

রাজ্যে নিম্নমুখী সংক্রমণ, সক্রিয় রোগীর সংখ্যা নামল ৫ হাজারের ঘরে

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন