moinul-hassan

ওয়েবডেস্ক: দলের সঙ্গে কোনো সম্পর্ক ছিল না গত কয়েক মাস ধরেই। শনিবার বহরমপুরে সাংবাদিক বৈঠক ডেকে পাকাপাকি ভাবে সিপিএম ছাড়ার কথা ঘোষণা করলেন চারবারের প্রাক্তন সাংসদ মইনুল হাসান। দীর্ঘ ৪২ বছর বাম আন্দোলনের সঙ্গে জড়িয়ে থাকা মইনুলসাহেব ছিলেন সিপিএম রাজ্য কমিটির সদস্যও।

ঠিক কী কারণে সিপিএমের তাত্ত্বিক নেতা হিসাবে পরিচিত মইনুলসাহেব দল ছাড়লেন?

সংবাদ মাধ্যমের সামনে তিনি খোলাখুলি ভাবেই বলেন, বর্তমানের রাজনৈতিক পরিমণ্ডলে বিজেপি-কে রুখতে সিপিএমের কোনো জোরালো পদক্ষেপ মানুষের চোখে ধরা পড়ছে না। নীতিহীনতায় ভুগছে দল। লোকসভা ভোটে কংগ্রেসের সঙ্গে জোট করবে কি করবে না, এমন সব বিতর্ককে সামনে রেখেই দলীয় নেতৃত্ব লড়ে চলেছেন। কিন্তু বিজেপি-কে রুখতে যে ধরনের কর্মসূচি নেওয়ার কথা তা অমিল।

তিনি বলেন, ‘‘সিপিএম যদি বিজেপি-তৃণমূলকে এক একই দৃষ্টিভঙ্গিতে দেখে আগামী লোকসভা নির্বাচনে নামে, তা হলে ক্ষতি হবে বিজেপি-বিরোধী শিবিরে৷ যদিও বিজেপি-কে প্রতিরোধ করার জন্য এখন ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন প্রয়োজন৷ আর সেই লক্ষ্যেই আমার সিপিএম ছাড়ার ঘোষণা৷’’

আরও পড়ুন: কার্ল মার্কস নিয়ে বই লেখার মাঝেই সিপিএম ছাড়ছেন চারবারের সাংসদ

রাজনৈতিক মহলের মতে, মইনুলসাহেবের কথায় ইঙ্গিত মিলেছে তাঁর আগামী পরিকল্পনার কথা। তিনি এক দিকে বলেছেন, “আমি নতুন চ্যালেঞ্জ নিয়ে ফিরছি”। আবার অন্য দিকে তিনি বলছেন বিজেপি-বিরোধী শিবিরকে শক্তিশালী করার কথা। এ মুহূর্তে বিজেপি-কে রুখতে পারে যে রাজনৈতিক দল, সেই দলের সঙ্গেই ঐক্যবদ্ধ হওয়ার কথা হয়তো তিনি বলতে চেয়েছেন। তবে সবটাই নির্ভর করছে, তাঁর ব্যক্তিগত সিদ্ধান্তের উপর।

ছবি: ফেসবুক থেকে

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here