রাজ্যের চার জেলার কোভিড পরিস্থিতি নিয়ে বিশেষ ভাবে উদ্বিগ্ন স্বাস্থ্য দফতর

0
coronavirus west bengal

খবরঅনলাইন ডেস্ক: কলকাতা ও তার পড়শি চার জেলায় এখনও পর্যন্ত দৈনিক কোভিড-আক্রান্তের সংখ্যা সব থেকে বেশি। কিন্তু স্বাস্থ্য দফতরের কর্তারা বিশেষ উদ্বিগ্ন রাজ্যের চারটে জেলাকে ঘিরে। এই চারটে জেলা হল বাঁকুড়া, পুরুলিয়া, পশ্চিম মেদিনীপুর আর আলিপুরদুয়ার।

এই প্রসঙ্গে স্বাস্থ্য দফতরের আধিকারিক বলেন, “এই মাসে যে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়বে, সেটা আমরা আগে থেকেই আন্দাজ করেছিলাম। টেস্টের সংখ্যা এখন আগের থেকে অনেক বেড়েছে। ফলে আক্রান্তের সংখ্যাও দিনের পর দিন বাড়ছে। এ ছাড়া চতুর্থ দফার আনলকে, কাজের সন্ধানে প্রচুর মানুষ রাস্তায় বেরিয়ে পড়েছেন। এর ফলেও আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে।”

Shyamsundar

কিন্তু কলকাতা ও তার পার্শ্ববর্তী জেলার পরিস্থিতি আগস্টের থেকে সেপ্টেম্বরে অনেকটাই ভালো হয়েছে বলে পরিসংখ্যান বলছে।

আগস্টের প্রথম কুড়ি দিন কলকাতায় আক্রান্ত হয়েছিলেন ১২ হাজার ৩৬৩ জন। কিন্তু সেপ্টেম্বরের প্রথম কুড়ি দিন আক্রান্তের সংখ্যা ৯,৪১৯। উত্তর ২৪ পরগণায় আগস্টের প্রথম কুড়ি দিন আক্রান্ত হয়েছিলেন ১১ হাজার ৫৬৯ জন। বিপরীতে সেপ্টেম্বরে আক্রান্তের সংখ্যা ১০ হাজার ৬৬১।

কিন্তু বাঁকুড়া, পুরুলিয়া, পশ্চিম মেদিনীপুর আর আলিপুরদুয়ারে আক্রান্তের সংখ্যা আগস্টের প্রথম কুড়ি দিনের তুলনায় সেপ্টেম্বরের প্রথম কুড়ি দিনে বেড়েছে অনেকটাই। বাঁকুড়ায় মোট ৪,৫৯০ জন রোগীর মধ্যে ১,৯২৯ জন রোগীকে খুঁজে পাওয়া গিয়েছে এই সেপ্টেম্বর। পুরুলিয়ায় ২,৭৮৫ জন রোগীর মধ্যে সেপ্টেম্বরে সন্ধান মিলেছে ১,৩২৬ জনের।

পশ্চিম মেদিনীপুর কিন্তু বিশেষ ভাবে চিন্তার জায়গা। শনিবার পর্যন্ত এক সপ্তাহেরও বেশি সময় ধরে এই জেলায় দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা দুশোর ওপরে ছিল। রবিবার অবশ্য তা কিছুটা কমেছে। কিন্তু সক্রিয় রোগীর নিরিখে এই মুহূর্তে উত্তর ২৪ পরগণা আর কলকাতার পরেই তৃতীয় স্থানে রয়েছে পশ্চিম মেদিনীপুর। আলিপুরদুয়ারেও রোগীবৃদ্ধির হার যথেষ্ট বেশি, যা খুবই চিন্তায় রাখছে প্রশাসনকে।

তবে স্বস্তির খবর এই যে রোগীর সংখ্যা যতই বাড়ুক, রাজ্যে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে সুস্থতার সংখ্যাও। একই সঙ্গে কমছে মৃত্যুহার, যা কিছুটা নিশ্চিন্তের।

খবরঅনলাইনে আরও পড়তে পারেন

৫টি রাজ্যেই মোট সক্রিয় কোভিডরোগীর ৬০ শতাংশ!

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন