খবরঅনলাইন ডেস্ক: রাজ্যের দাবি মেনে পশ্চিমবঙ্গে স্পেশ্যাল ট্রেনের সংখ্যা কমাচ্ছে কেন্দ্রর। দেশের সর্বাধিক করোনা প্রভাবিত রাজ্যগুলি থেকে এ বার সপ্তাহে এক দিন করে ট্রেন যাবে পশ্চিমবঙ্গের উদ্দেশে। আগামী ১০ জুলাই থেকে নতুন এই পদ্ধতি চালু হতে চলেছে বলে রেল জানিয়েছে।

রাজ্য, বিশেষত কলকাতা আর লাগোয়া পুরশহরগুলিতে করোনা-আক্রান্তের সংখ্যায় ক্রমশ বৃদ্ধির পেছনে বাইরের রাজ্য থেকে ট্রেন আর উড়ান আসাকেই দায়ী করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)।

Loading videos...

মুখ্যমন্ত্রীর অভিযোগ ছিল, ঘরোয়া উড়ান এবং স্পেশ্যাল ট্রেন চালানোর ক্ষেত্রে যে প্রোটোকল বেঁধে দেওয়া হয়েছিল সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ তা মানছে না। যার ফলে অন্য রাজ্য থেকে করোনা আক্রান্ত ব্যক্তিরা বিনা বাধায় রাজ্যে চলে আসছেন। যে কারণে এই রাজ্যে সংক্রমণের ঘটনা বাড়ছে। এ নিয়ে কেন্দ্রের কাছে চিঠি পাঠানো হয়েছিল নবান্ন থেকে।

এমনিতেও দেখা যাচ্ছে কলকাতায় করোনা-আক্রান্তের বেশির ভাগই বহুতলের বাসিন্দা। শহরের কনটেনমেন্ট জোনের ৭৭ শতাংশই রয়েছে বহুতলে। এতেই সন্দেহ বাড়ে যে বাইরের রাজ্য থেকে যাঁরা আসছেন, তাঁরা অনেকাংশেই করোনায় আক্রান্ত হয়ে আসছেন।

রাজ্য সরকারের আবেদনে সাড়া দিয়ে ৬ জুলাই থেকে দেশের মোট ছ’টি শহর থেকে কলকাতা বিমানবন্দরে কোনো উড়ান নামবে না বলে সিদ্ধান্ত করে কেন্দ্রীয় সরকার। ‘নিষিদ্ধ’ এই ছয় শহরের তালিকায় আছে দিল্লি, মুম্বই, পুনে, নাগপুর, চেন্নাই ও অমদাবাদ।

কী কী ট্রেনের ওপরে কোপ পড়ল

একই ভাবে করোনা প্রভাবিত শহরগুলি থেকে স্পেশাল ট্রেনের সংখ্যাও কমিয়ে দেওয়া হয়েছে। পূর্ব রেলের তরফে জানানো হয়েছে, আগামী ১১ জুলাই থেকে হাওড়া-নয়াদিল্লি এসি স্পেশাল (ভায়া পটনা) সপ্তাহে চার দিনের বদলে হাওড়া থেকে ছাড়বে প্রতি শনিবার, দিল্লি থেকে ছাড়বে প্রতি রবিবার।

পাশাপাশি, হাওড়া-নয়াদিল্লি এসি স্পেশাল (ভায়া ধানবাদ) এখন সপ্তাহে তিন দিনের বদলে প্রতি বৃহস্পতিবার হাওড়া থেকে ছাড়বে, দিল্লি থেকে ছাড়বে প্রতি শুক্রবার।

দক্ষিণপূর্ব রেলের তরফে জানানো হয়েছে যে হাওড়া-অমদাবাদ স্পেশাল ১০ জুলাই থেকে রোজের পরিবর্তে প্রতি শুক্রবার হাওড়া থেকে ছাড়বে। ফিরতি ট্রেনটি ১৩ জুলাই থেকে প্রতি সোমবার অমদাবাদ থেকে ছাড়বে।

হাওড়া-মুম্বই স্পেশাল ১৫ জুলাই থেকে রোজের বদলে প্রতি বুধবার হাওড়া থেকে ছাড়বে। ফিরতি ট্রেনটি ১৭ জুলাই থেকে রোজের বদলে প্রতি শুক্রবার মুম্বই থেকে ছাড়বে।

তবে বেঙ্গালুরু আর হায়দরাবাদে করোনা যে ভাবে ছড়াচ্ছে, এই দুই শহর থেকেও উড়ান আর ট্রেনের ওপরে লাগাম পরানো উচিত বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.