rainy season in west bengal

ওয়েবডেস্ক: পর্যাপ্ত বৃষ্টির অভাবে গোটা রাজ্যের ক্রমশ বাড়ছে বৃষ্টির ঘাটতি। যেটুকু বৃষ্টি হচ্ছে তাতে বিশেষ ঘাটতি মিটছে না। এই আবহে রাজ্যবাসী, বিশেষ করে কৃষিকাজের সঙ্গে মানুষজনদের প্রার্থনা প্রবল বৃষ্টির।

কিন্তু আপাতত আগামী কয়েক দিন জোর বৃষ্টির সম্ভাবনা নেই বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর। অন্য দিকে বেসরকারি আবহাওয়া সংস্থা ওয়েদার আল্টিমাও জানিয়েছে, অন্তত আগামী বৃহস্পতিবার পর্যন্ত উল্লেখযোগ্য বৃষ্টির কোনো সম্ভাবনা নেই, বরং ক্রমশ বাড়বে পারদ।

আলিপুর আবহাওয়া দফতর থেকে বলা হয়েছে গত কয়েক দিন ধরে যে নিম্নচাপটি পশ্চিমবঙ্গ উপকূল লাগোয়া বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছিল সেটি এখন ওড়িশার অন্দরে ঢুকে যাচ্ছে। এর প্রভাবে রবিবার ওড়িশার পুরী এবং ভুবনেশ্বরে ব্যাপক বৃষ্টি হয়েছে। অন্য দিকে কলকাতা তথা দক্ষিণবঙ্গে বিক্ষিপ্ত ভাবে অল্প সময়ের ভারী বৃষ্টি ছাড়া বিশেষ কিছু হয়নি।

ওয়েদার আল্টিমার কর্ণধার রবীন্দ্র গোয়েঙ্কা জানিয়েছেন, এই নিম্নচাপটি ক্রমশ মধ্য ভারতের দিকে এগিয়ে যাবে। ফলে আরব সাগর এবং বঙ্গোপসাগরের সমস্ত জলীয় বাস্প নিজের দিকে টেনে নেবে সে। অন্য দিকে উত্তর-পূর্ব ভারতের ওপরে আরও একটি ঘূর্ণাবর্ত রয়েছে। সেই ঘূর্ণাবর্ত সমস্ত জলীয় বাস্প নিজের দিকে টেনে নিচ্ছে। এর ফলে দক্ষিণ এবং উত্তরবঙ্গের ওপরে ছোটোখাটো একটা মনসুন ব্রেক তৈরি হবে।

north bengal rain

তবে দক্ষিণবঙ্গের জন্য খুশির খবর আসতে পারে এই সপ্তাহের শেষে। ওয়েদার আল্টিমা জানিয়েছে, শুক্রবার এবং শনিবার নাগাদ দক্ষিণবঙ্গে বৃষ্টির দাপট বাড়ার সম্ভাবনা উজ্জ্বল। অন্য দিকে আলিপুর আবহাওয়া দফতরও জানিয়েছে সামনের বৃহস্পতিবার নাগাদ আরও একটি নিম্নচাপের সৃষ্টি হতে পারে বঙ্গোপসাগরে। আশা করা হচ্ছে, এই নিম্নচাপটি ওড়িশার দিক না ধরে দক্ষিণবঙ্গের পথ ধরবে। ফলে বৃষ্টি বাড়ার সম্ভাবনা অত্যন্ত বেশি। তবে দক্ষিণবঙ্গে বৃষ্টি বাড়লেও, আগামী দু’সপ্তাহে উত্তরবঙ্গে উল্লেখযোগ্য বৃষ্টির সম্ভাবনা কার্যত নেই বলে জানিয়েছে আবহাওয়া দফতর।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here