mousumi mistry

কলকাতা: প্রেমের সম্পর্কের করুণ পরিণতি৷ সম্পর্কের টানাপোড়েনে ফেসবুকে লাইভ ভিডিও কল করে আত্মঘাতী দ্বাদশ শ্রেণির এক ছাত্রী৷ ঘটনাটি ঘটেছে সোনারপুরের বৈদ্যপাড়ায়৷

আত্মঘাতী ছাত্রীর নাম মৌসুমি মিস্ত্রি৷ সোনারপুর কামরাবাদ স্কুলের দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্রী সে৷ সোনারপুরেরই ঘাসিয়াড়ার এক যুবক আরিয়ানের সাথে তার সম্পর্ক ছিল বলে জানা গিয়েছে৷ শনিবার দুপুরবেলায় এক বান্ধবীর ফোন পেয়ে তাড়াহুড়ো করে বাড়ি থেকে বেরিয়ে যায় সে৷ বিকেল পাঁচটার মধ্যে তার বাড়ি ফেরার কথা থাকলেও সময়মতো ফেরেনি সে৷ সন্ধে ছটা নাগাদ বাড়িতে ফেরে৷ বাড়িতে ফিরলেও কারোর সাথে সে ভাবে কথা বলেনি৷ মা শম্পা মিস্ত্রি আয়ার কাজ করেন৷ তিনি সন্ধেবেলা সাড়ে ছটা নাগাদ বাড়ি থেকে বেরিয়ে যান৷ মৌসুমির বাবা ও ভাই অন্যত্র থাকেন৷ বাড়িতে একাই ছিল সে৷ তার পর পাড়ার একটি জলসাতেও যায় সে৷ ফিরে এসে রাতের খাওয়াদাওয়া করে প্রতিদিনের মতো দরজা বন্ধ করে শুয়ে পড়ে৷ প্রতি দিন সকালে আটটার মধ্যে উঠে পড়লেও রবিবার ওঠেনি সে৷ অনেক ডাকাডাকি করেও সাড়াশব্দ না পাওযায় জানলা দিয়ে তাকে দেখেন বাড়ির লোক৷ ঘরের মধ্যে কড়িখাটের দরজায় ওড়নায় ফাঁস দেওয়া অবস্থায় তার দেহ দেখতে পাওয়া যায়৷

মৌসুমির মোবাইলে এখনও স্টোর রয়েছে তার আত্মহত্যার ভিডিও৷ ঘটনার আগে আরিয়ানের সাথে তার ওয়াটসঅ্যাপে ফোনেও দীর্ঘক্ষণ কথা হয়৷ আরিয়ান বিষয়টি জানলেও কাউকে কেন জানায়নি তা নিয়ে প্রশ্ন উঠছে৷ এই ঘটনায় মৌসুমির মা অভিযুক্তের কড়া শাস্তির দাবি জানিয়েছেন ৷

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here