babul supriyo

ওয়েবডেস্ক: আসানসোলের বিস্তীর্ণ এলাকায় জলের সমস্যা দীর্ঘ দিনের। রাজনৈতিক মহলের মতে, কুলটি, জামুড়িয়া বা রানিগঞ্জের মানুষের জলের সমস্যার অভিযোগকে হাতিয়ার করেই ২০১৪ সালের লোকসভায় হইহই করে জিতে যান বিজেপির প্রার্থী বাবুল সুপ্রিয়। স্থানীয় স্তরে জল সমস্যা মেটাতে কেন্দ্র তাঁকে টাকা দেয় না, এমন যুক্তি তুলে টুইটারে উষ্মা প্রকাশ করলেন সাংসদ বাবুল সুপ্রিয়।

এই টুইটারের উৎস অবশ্য একটি সংবাদপত্রে প্রকাশিত আসানসোলের জল সংকটের প্রতিবেদন। যেখানে তুলে ধরা হয়েছে সদ্য জনস্বাস্থ্য ও কারিগরি দফতর হাতে পাওয়া রাজ্যের শ্রম ও আইনমন্ত্রী মলয় ঘটকের চ্যালেঞ্জের কথা। নতুন দফতর হাতে পেয়ে মন্ত্রী নিজের এলাকায় জলের সমস্যা মেটাতে কী পরিকল্পনা নিতে চলেছেন, ওই প্রতিবেদনে সে সব তথ্যই তুলে ধরা হয়েছে। কিন্তু এলাকার সাংসদ বাবুল সুপ্রিয় গত চার বছরে ওই সমস্যা মেটাতে কতটা সার্থক বা কতটা ব্যর্থ, তা সরাসরি ব্যক্ত করা হয়নি।

তবুও তাঁকেই ইঙ্গিত করা হচ্ছে ধরে নিয়ে বাবুল শনিবার নিজের টুইটারে ওই খবরের কাটিং-সহ মন্তব্য পোস্ট করেন। বাবুল লিখেছেন, “কেন্দ্রীয় সরকার টাকা দেওয়া সত্ত্বেও রাজ্য সরকার ও কর্পোরেশন মানুষকে দিনের পর দিন কষ্টে রেখে মেলা উৎসব করে করের টাকা অপচয় করছে। কবে জলের প্রকল্পগুলি শেষ হবে কেউ জানেনা। বাড়ি বাড়ি জলের কানেকশন দেওয়ার দায়িত্ত্ব সাংসদের হলে রাজ্যকে না দিয়ে জলের কোটি কোটি টাকা কেন্দ্র আমাকেই দিতো”।

ছবি: টুইটার থেকে

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here