জুলাইয়ের শেষ সপ্তাহের দিকে তাকিয়ে অনাবৃষ্টিতে জর্জরিত দক্ষিণবঙ্গ

0

কলকাতা: অনাবৃষ্টিতে জর্জরিত দক্ষিণবঙ্গের জন্য অবশেষে আশার আলো। শেষ জুলাইয়ে জোর বৃষ্টিতে ভাসতে পারে দক্ষিণবঙ্গের বেশির ভাগ জেলা। পাশাপাশি ঝাড়খণ্ডেও প্রবল বৃষ্টির সম্ভাবনা থাকায় দামোদর এবং তার শাখানদীগুলিতেও জল বাড়ার সম্ভাবনা।

উল্লেখ্য, এ বারের বর্ষার মরশুমটি দক্ষিণবঙ্গের কাছে অত্যন্ত খারাপ চলছে। বর্ষা এসেছে প্রায় ৩৫ দিন হয়ে গেল, অথচ এক বারও টানা বৃষ্টি দেখেনি দক্ষিণবঙ্গ। যার ফলে চাষে ক্ষতি তো বটেই, বিভিন্ন নদীতে জলস্তরও কমে যাচ্ছে। ফলে চরম খারাপ অবস্থার তৈরি হতে চলেছে দক্ষিণবঙ্গে।

দক্ষিণবঙ্গের কাছে এ বার বর্ষার মরশুমটা যে অত্যন্ত খারাপ হতে চলেছে সেটা আগেই জানিয়েছিল খবর অনলাইন। তার মূল কারণ ‘এল নিনো‘র তৈরি হওয়া। এর প্রভাবে এ বার বঙ্গোপসাগরে নিম্নচাপ তৈরি কার্যত হচ্ছেই না। দক্ষিণবঙ্গে বর্ষায় জোর বৃষ্টি নামায় মূলত নিম্নচাপ। সেই নিম্নচাপের অভাবের জন্য টানা বৃষ্টির দেখা নেই দক্ষিণবঙ্গে। পাশাপাশি মৌসুমী অক্ষরেখাও থিতু হতে পাচ্ছে না দক্ষিণবঙ্গে। ফলে স্থানীয় বজ্রগর্ভ মেঘের থেকে বৃষ্টি ছাড়া বিশেষ বর্ষণ পাচ্ছেই না রাজ্যের এই অংশটি।

অবশেষে দক্ষিণবঙ্গে জোরদার বৃষ্টি শুরু হওয়ার জন্য পরিস্থিতি অনুকূল হতে শুরু করেছে। যে নিম্নচাপ এত দিন দক্ষিণবঙ্গকে এড়িয়ে যাচ্ছিল, সেই নিম্নচাপই এ বার জোর বৃষ্টি নামাতে চলেছে দক্ষিণবঙ্গে। পাশাপাশি শক্তিশালী মৌসুমী অক্ষরেখাও জোর বৃষ্টি নামানোর জন্য সাহায্য করবে।

আরও পড়ুন দক্ষিণবঙ্গে ঘাটতি ৫২%, এখনই টানা বৃষ্টি না হলে ভয়াবহ পরিস্থিতি তৈরি হওয়ার আশঙ্কা

মঙ্গলবার থেকেই ধীরে ধীরে সক্রিয় হতে শুরু করবে বর্ষা। তবে কলকাতা বা তার পার্শ্ববর্তী অঞ্চলে মঙ্গলবার বিশেষ বৃষ্টির সম্ভাবনা নেই। যদি হয়ও সেটা স্থানীয় মেঘের সঞ্চারে হবে। তবে মঙ্গলবার পশ্চিমাঞ্চলের জেলাগুলি এবং মালদা, মুর্শিদাবাদে বৃষ্টির সম্ভাবনা বাড়বে। সামগ্রিক ভাবে দক্ষিণবঙ্গের সর্বত্র বৃষ্টির সম্ভাবনা বাড়বে বুধবার থেকে। বৃহস্পতিবার থেকে মাঝারি থেকে বিক্ষিপ্ত ভাবে ভারী বৃষ্টিরও সম্ভাবনা রয়েছে। এই বৃষ্টি মূলত মৌসুমী অক্ষরেখার প্রভাবেই হবে। এর পরেই হানা দিতে পারে নিম্নচাপটি।

এখনও নিম্নচাপটির গতিপথ কী হবে, সে ব্যাপারে নিশ্চিত করে কিছু বলা যাচ্ছে না। তবে বেসরকারি আবহাওয়া সংস্থা ওয়েদার আল্টিমা জানাচ্ছে, মরশুমে এই প্রথম বার নিম্নচাপের সরাসরি প্রভাব পড়তে পারে দক্ষিণবঙ্গে। সংস্থার কর্ণধার রবীন্দ্র গোয়েঙ্কা জানাচ্ছেন, নিম্নচাপটির গভীর নিম্নচাপে পরিণত হওয়ার সম্ভাবনাও রয়েছে। এবং সেটা রাজ্যে পশ্চিমাঞ্চল দিয়েই পাড়ি দেবে ঝাড়খণ্ডের উদ্দেশে। ফলে দক্ষিণবঙ্গ এবং ঝাড়খণ্ডে প্রবল বৃষ্টি দিয়েই জুলাই মাস শেষ হতে পারে, এমনই মনে করা হচ্ছে।

এই মুহূর্তে চরম বৃষ্টির ঘাটতিতে থাকা দক্ষিণবঙ্গের প্রার্থনা এ বার হানা দিক ওই নিম্নচাপটি।

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন