রাজ্যপাল তাঁকে হুমকি দিয়েছেন, জানিয়ে দিলেন রুষ্ট মমতা, অস্বীকার রাজ্যপালের

0
419

কলকাতা: রাজ্যপাল কেশরীনাথ ত্রিপাঠীর কথায় রীতিমতো ক্ষুব্ধ, অপমানিত, অসম্মানিত মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মঙ্গলবার সাংবাদিক সম্মেলন করে রাজ্যপালের প্রতি তাঁর ক্ষোভের কথা নিজেই প্রকাশ্যে জানিয়ে দিলেন। তবে মুখ্যমন্ত্রীর এই অভিযোগ সরাসরি অস্বীকার করেছেন রাজ্যপাল।

সোমবার বসিরহাটে গোষ্ঠীসংঘর্ষের জেরে মুখ্যমন্ত্রীকে ফোন করেন রাজ্যপাল। মুখ্যমন্ত্রীর অভিযোগ, ফোনে তাঁকে হুমকি দিয়েছেন রাজ্যপাল। মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “আমি রাজ্যপালকে বলেছি, আপনি আমার সঙ্গে এ ভাবে কথা বলতে পারেন না। রাজ্যপাল বিজেপি ব্লক সভাপতির মতো কথা বলেছেন। রাজ্যপাল সব সময় এক পক্ষ নিয়ে কথা বলেন।”

মুখ্যমন্ত্রী সাফ জানিয়ে দেন, বিজেপির দয়ায় তিনি এ রাজ্যে ক্ষমতায় আসেননি, রাজ্যপালের দয়ায় তিনি মুখ্যমন্ত্রী হননি। তিনি ছোটোবেলা থেকে রাজনীতি করছেন। এ সব তিনি বরদাস্ত করবেন না।

তবে ফোনে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে হুমকি দেওয়া, তাঁকে অপমান করার কথা অস্বীকার করেছেন রাজ্যপাল কেশরীনাথ ত্রিপাঠী। রাজভবন থেকে প্রচারিত এক সরকারি বিবৃতিতে রাজ্যপাল বলেছেন, তিনি এমন কিছু কথা বলেননি যা আপত্তিকর বলে মনে হতে পারে। তিনি যে কোনো উপায়ে রাজ্যে শান্তি ও আইনশৃঙ্খলা সুনিশ্চিত করার কথা বলেছেন।

বিবৃতিতে রাজ্যপাল বলেছেন, “মুখ্যমন্ত্রীর দৃষ্টিভঙ্গি এবং তিনি যে ভাষা ব্যবহার করেছেন, তাতে আমি বিস্মিত। যে কথা হয়েছে তা গোপন রাখার কথা, কেউই তা প্রকাশ করতে পারেন না। কথাতে এমন কিছু ছিল না যাতে মুখ্যমন্ত্রী অসম্মানিত বোধ করতে পারেন বা তাঁকে হুমকি দেওয়া হয়েছে বলে মনে হতে পারে।”

মুখ্যমন্ত্রীর ক্ষোভ নিয়ে রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষের প্রশ্ন, রাজ্যপাল কি মুখ্যমন্ত্রীকে ফোন করতে পারেন না? এতে অপমানের কী আছে?

এক ক্লিকে মনের মানুষ,খবর অনলাইন পাত্রপাত্রীর খোঁজ

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here