উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার খাতা দেখা বয়কটের হুঁশিয়ারি একাংশের শিক্ষকের

0
teachers
প্রতীকী ছবি

কলকাতা: উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার খাতা দেখা এবং একই সঙ্গে ক্লাস বয়কটের হুঁশিয়ারি দিলেন আন্দোলনরত গ্র্যাজুয়েট শিক্ষকরা।

হাইকোর্টের নির্দেশ মেনে বেতন কাঠামো বাস্তবায়ন-সহ একাধিক দাবিকে সামনে রেখে সল্টলেকে অবস্থান করছে গ্র্যাজুয়েট শিক্ষকদের সংগঠন বৃহত্তর গ্র্যাজুয়েট টিচার্স অ্যাসোসিয়েশন (বিজিটিএ)। তাদের দাবি, কোনো রকমের আর্থিক এবং আইনি স্বীকৃতি ব্যতিরেকেই প্রায় ৪০ শতাংশ স্কুলে ক্লাস নিয়ে থাকেন ওই শিক্ষকেরা।

এমনিতে গ্র্যাজুয়েট শিক্ষকদের বেতনক্রম ৭,১০০ টাকা থেকে ৩৭,৬০০ টাকা। সংগঠনের অভিযোগ, উচ্চমাধ্যমিক স্তরের ক্লাস নিলেও সেই অনুযায়ী তারা বেতন হাতে পান না। এমনকী ষষ্ঠ বেতন কমিশন থেকেও তারা বঞ্চিত।

এর আগে কলকাতা হাইকোর্ট এ বিষয়ে গ্র্যাজুয়েট শিক্ষকদের বেতনক্রম বৃদ্ধির নির্দেশ দেয়। সংগঠনের দাবি, হাইকোর্টের নির্দেশ মেনে তাদের পে স্কেল ৯,০০০ টাকা থেকে ৪০,০০০ টাকা এবং গ্রেড পে ৪,৬০০ টাকা করা হোক।

যে কারণে রাজ্যের প্রায় লক্ষাধিক গ্র্যাজুয়েট শিক্ষক ক্ষোভে ফুঁসছেন। তাঁদের সঙ্গে পোস্ট গ্র্যাজুয়েট শিক্ষকদের বেতনের ফারাকও প্রায় ৯,২০০ টাকা বলে দাবি করা হয়। এ ব্যাপারে রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় একাধিক বার আশ্বাস দিলেও তা কার্যকর হয়নি। পরিবর্তে হাইকোর্টের সিঙ্গল বেঞ্চের নির্দেশকে চ্যালেঞ্জ করে রাজ্য ডিভিশন বেঞ্চে যায়।

দিল্লির কলেজে ছাত্রীদের হেনস্থার ঘটনার ছ’দিন পর পদক্ষেপ পুলিশের

এ ব্যাপারে সংগঠনও পাল্টা চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়ে জানিয়েছে, তাদের দাবি না মানা হলে উচ্চমাধ্যমের ক্লাস নেওয়ার পাশাপাশি পরীক্ষার খাতা দেওয়া বয়কট করা হবে।

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন