মামলাকারী অনুপস্থিত, এক সপ্তাহ পিছিয়ে গেল নন্দীগ্রাম মামলার শুনানি

0

খবরঅনলাইন ডেস্ক: নন্দীগ্রাম বিধানসভার ফল নিয়ে হাইকোর্টে মামলার শুনানি এক সপ্তাহের জন্য পিছিয়ে গেল। আগামী বৃহস্পতিবার ২৪ জুন হবে এই মামলার পরবর্তী শুনানি।

শুক্রবার বেলা ১১টা নাগাদ কলকাতা হাইকোর্টে বিচারপতি কৌশিক চন্দের বেঞ্চে এই মামলার শুনানি শুরু হয়েছিল। জন প্রতিনিধি আইন অনুযায়ী নির্বাচনী মামলার আবেদনকারীকে আদালতে উপস্থিত থাকতে হবে বলে জানান বিচারপতি।

এই মামলার আবেদন করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাই আদালতে তাঁকে উপস্থিত থাকতে হত। তিনি উপস্থিত থাকতে পারবেন কি না তা মমতার আইনজীবীর কাছে জানতে চান বিচারপতি। জবাবে, মমতার আইনজীবী জানান, যা নিয়ম আছে তা মানা হবে।

আবেদনে কী বলেছেন মমতা

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তাঁর আবেদনে তিনটি কারণে শুভেন্দু অধিকারীর নির্বাচন বাতিল ঘোষণা করার নির্দেশ চেয়েছেন – ঘুষ দেওয়া-সহ নানা দুর্নীতিমূলক কাজকর্ম সম্পাদন করা, ঘৃণা ও শত্রুতা সৃষ্টি করে ধর্মের ভিত্তিতে ভোট চাওয়া এবং বুথ দখল। এ ছাড়া গণনা পদ্ধতিতেও নানা অসামঞ্জস্য এবং ১৭সি ফর্ম (এই ফর্মে ভোটের হিসাব ও গণনার ফল রাখা হয়) না মানার কথাও বলা হয়েছে।

তাঁর পুনর্গণনার দাবি নির্বাচন কমিশন খারিজ করে দেওয়া নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

আবেদনে বলা হয়েছে, “শুভেন্দু অধিকারী নানা ধরনের দুর্নীতিমূলক ক্রিয়াকলাপ চালিয়েছেন যা তাঁর জেতার সম্ভাবনা বাড়িয়েছে এবং নির্বাচনে মমতা ব্যানার্জির সাফল্যের সম্ভাবনা বস্তুগত ভাবে পালটে দিয়েছে।”

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আইনজীবী সঞ্জয় বসু বৃহস্পতিবার বলেন, নন্দীগ্রামের নির্বাচন বাতিল করে দেওয়ার নির্দেশ চেয়েছেন। তিন দিন আগেই মামলা করা হয়েছে এবং এই মামলার শুনানি হবে বিচারপতি কৌশিক চন্দের বেঞ্চে – আগামী কাল শুনানি হওয়ার যে তালিকা রয়েছে, তার প্রথমেই রয়েছে এই মামলা।

আরও পড়তে পারেন প্রবল বৃষ্টির ফলে জয়চণ্ডী পাহাড় থেকে ধসে পড়ল পাথর, আতঙ্কে স্থানীয়রা

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন