রাজ্য জুড়ে ব্যাপক বৃষ্টি, পুজোর আগে মাথায় হাত উদ্যোক্তাদের

0

ওয়েবডেস্ক: সাধারণত দেখা যায় দক্ষিণবঙ্গে ব্যাপক বৃষ্টি হলে শুখা থাকে উত্তরবঙ্গ আবার উত্তরে ব্যাপক বৃষ্টি হলে বৃষ্টিহীন হয়ে পড়ে দক্ষিণ। কিন্তু এ বার গোটা রাজ্য জুড়েই ব্যাপক বৃষ্টি হচ্ছে।

মঙ্গলবার দুপুরের পর থেকে দক্ষিণবঙ্গ জুড়ে ব্যাপক বৃষ্টি শুরু হয়। শুক্রবার সকালেও সেই বৃষ্টি থামেনি। কখনও কমছে কখনও বাড়ছে। যদিও এক লপ্তে প্রচুর পরিমাণ বৃষ্টি হয়নি বলে জল জমার সমস্যা সে ভাবে নেই।

বুধবার বিকেলের পর এই বৃষ্টির হাত থেকে কিছুটা রেহাই পাওয়ার সম্ভাবনা থাকলেও, আগামী চার-পাঁচ দিন টানা বৃষ্টি চলতে পারে বলেই আশঙ্কা করা হচ্ছে।

অন্য দিকে একই অবস্থা উত্তরবঙ্গেরও। সেখানেও মঙ্গলবার বিকেলের পর থেকে জোরদার বৃষ্টি শুরু হয়েছে। এই পরিস্থিতিতে কার্যত মাথায় হাত পুজোউদ্যোক্তা এবং প্রতিমাশিল্পীদের।

কয়েক দিনের মধ্যেই প্যান্ডেলে প্যান্ডেলে পৌঁছে দিতে হবে ঠাকুর। তার আগে এই বৃষ্টিতে প্রতিমার রঙ শুকোনোয় এখন সমস্যার হয়ে দাঁড়িয়েছে।

এ বছর বর্ষায় সে ভাবে টানা বৃষ্টি দেখেনি দক্ষিণবঙ্গ। গত মাসে ১৬ এবং ১৭ তারিখ প্রথম টানা বৃষ্টির কবলে পড়েছিল সে। তার পর আবার বর্ষার প্রায় শেষ লগ্নে এসে শুরু হল টানা বৃষ্টি।

মঙ্গলবার সকাল সাড়ে আটটা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টায় কলকাতায় বৃষ্টি হয়েছে ৮১ মিলিমিটার। তবে বৃষ্টির রেকর্ডে দক্ষিণবঙ্গের অনেক জায়গায় শতরান পেরিয়েছে। বৃষ্টির দাপট সব থেকে বেশি ছিল দুই ২৪ পরগণা, দুই মেদিনীপুর, ঝাড়গ্রাম এবং পুরুলিয়ায়।

গত ২৪ ঘণ্টায় দক্ষিণবঙ্গে সব থেকে বেশি বৃষ্টি হয়েছে কাঁথিতে (১৩৫ মিমি)। এ ছাড়াও শতরান পেরিয়েছে ডায়মন্ড হারবার (১০৬ মিমি), দিঘা (১১৪ মিমি) এবং মেদিনীপুরও (১১০ মিমি)। ১০০-এর গণ্ডি না পেরোলেও জোর বৃষ্টি হয়েছে হলদিয়া (৭৪ মিমি) এবং ক্যানিং (৭৯ মিমি)। পুরুলিয়া, বীরভূমেও গড়ে ৫০ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে।

আরও পড়ুন সাফাই অভিযান সিয়াচেনে, ১৩০ টন বর্জ্য উদ্ধার করল সেনা

তুলনায় বৃষ্টির দাপট কিছুটা কম বাঁকুড়া, বর্ধমানে। তবে এই জেলাগুলিতেও আগামী কয়েক দিনে ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টি হতে পারে।

অন্য দিকে উত্তরবঙ্গেও ব্যাপক বৃষ্টি। সেখানে ১০০-এর গণ্ডি পেরিয়েছে শিলিগুড়ি (১৩১ মিমি)। জলপাইগুড়ি এবং কোচবিহারে বৃষ্টি হয়েছে যথাক্রমে ৯৩ এবং ৭১ মিলিমিটার। দার্জিলিংয়ে বৃষ্টি হয়েছে ৬০ মিমি।

তবে রাজ্যের দুই অংশে এই বৃষ্টির কারণ ভিন্ন। এক দিকে দক্ষিণবঙ্গে বৃষ্টি নামাচ্ছে বঙ্গোপসাগর এবং উত্তরপ্রদেশে থাকা দু’টি ঘূর্ণাবর্ত। এর প্রভাবে হুহু করে জলীয় বাষ্প ঢুকছে দক্ষিণবঙ্গের বায়ুমণ্ডলে। আবার অসমে অবস্থিত একটি ঘূর্ণাবর্ত বঙ্গোপসাগরের জলীয় বাষ্পকে টেনে নিয়ে যাচ্ছে উত্তরবঙ্গে। ফলে সেখানেও ব্যাপক বৃষ্টি।

গোটা রাজ্যেই বৃষ্টি আপাতত চলবে। তবে তীব্রতায় হয়তো একটু ইতরবিশেষ হতে পারে। এখনও বঙ্গোপসাগরে নিম্নচাপ তৈরিই হয়নি। ফলে সেই নিম্নচাপ তৈরি হলে বৃষ্টি আরও বাড়তে পারে। জোর বৃষ্টির সম্ভাবনা মহালয়াতেও।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here