rain wb

কলকাতা: রাতভর ভারী বর্ষণের জেরে কার্যত অচল হয়ে পড়েছে উত্তর এবং মধ্য কলকাতা। দক্ষিণ কলকাতায় বৃষ্টির দাপট অনেকটাই কম থাকলেও বৃহস্পতিবার সারা দিনই বৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর।

বুধবার রাত দশটার কিছু পর থেকে জোর বৃষ্টি শুরু হয় কলকাতায়। তার আগেই অবশ্য কলকাতার পার্শ্ববর্তী জেলাগুলিতে ভালো বৃষ্টি হয়েছে। বুধবার সারা রাত কলকাতায় বৃষ্টি হওয়ায় জলমগ্ন হয়ে পড়েছে উত্তর এবং মধ্য কলকাতার বিস্তীর্ণ এলাকা।

বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে আটটা পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় সব থেকে বেশি বৃষ্টি হয়েছে দমদমে (১০৫ মিমি)। আলিপুরে তুলনায় অবশ্য অনেক কম বৃষ্টি হয়েছে (৩৮ মিমি)। জেলাগুলিতে সব থেকে বেশি বৃষ্টি হয়েছে ক্যানিং-এ (৮৩ মিমি)। এ ছাড়াও দক্ষিণবঙ্গের বাকি সব জায়গাতেই গড়ে ৩০ মিমি করে বৃষ্টি হয়েছে। এই বৃষ্টিতে শহরে যেমন জলজমার দুর্ভোগ এসেছে, তেমনই হাসি ফুটেছে কৃষকদের মুখে। এর ফলে দক্ষিণবঙ্গে বৃষ্টির ঘাটতি অনেকটাই কমে যাবে।

এই বৃষ্টির কারণ কী?

বেসরকারি আবহাওয়া সংস্থা ওয়েদার আল্টিমার তরফ থেকে জানানো হয়েছে, উত্তর ভারতের ওপরে নিম্নচাপ এবং দক্ষিণবঙ্গের ওপর দিয়ে মৌসুমী অক্ষরেখা থাকার ফলেই এই বৃষ্টি। সংস্থার কর্ণধার রবীন্দ্র গোয়েঙ্কা বলেন, “নিম্নচাপটি দক্ষিণবঙ্গের ওপরে জলীয় বাষ্প ঢুকিয়ে দিচ্ছে। এর ফলে শুক্রবার পর্যন্ত দফায় দফায় দক্ষিণবঙ্গে হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টি হবে।” বিক্ষিপ্ত ভাবে অল্প সময়ের ভারী বৃষ্টিও হতে পারে বলে জানান তিনি। শনিবার থেকে বৃষ্টির দাপট কিছুটা কমতে পারে বলে জানিয়েছেন রবীন্দ্রবাবু।

আরও পড়ুন চন্দ্রগ্রহণ চলাকালীন না-খাওয়ার কুসংস্কার দূর করতে প্রচারে ভারতের জ্যোতির্বিজ্ঞানীরা

আপাতত এই বৃষ্টির হাত ধরেই দক্ষিণবঙ্গে বর্ষার ঘাটতি কাটিয়ে নেওয়ার পালা।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here