কাজের চাপ ?  আরও নানা চিন্তা ? বহু চেষ্টাতেও রাতে ঘুম হয় না। সকালে উঠে মাথা ঝিম ঝিম, কাজে মন লাগে না ? বাধ্য হয়েই চিকিৎসকের পরামর্শ। কড়া ডোজের ঘুমের অসুধ খেতে খেতে বিরক্ত বেশির ভাগ সকলেই। তাহলে আপনার জন্য সুখবর। খাস কলকাতাতেই বানানো হয় এমন এক মিষ্টি যা খেলে সারারাত নির্বিঘ্নে ঘুমের প্রতিশ্রুতি দিচ্ছে শহরের একটি মিষ্টান্ন প্রতিষ্ঠান। মিষ্টির নামটিও খাসা। সাউন্ড স্লিপ।

শরীর ফিট কিংবা ত্বক সতেজ করতে কেমিক্যাল প্রোডাক্ট ছেড়ে হার্বালে মজেছে এমন মানুষের সংখ্যাটা নেহাত কম নয়। এই প্রবণতার হাত ধরে দেশব্যাপী চাহিদা বেড়েছে পতঞ্জলির। রামদেবের প্রতিষ্ঠানের মত বিশাল ব্যাপার না হলেও একবার যারা চেখে দেখেছেন, তারা সকলেই মানছেন এই মিষ্টির উপকারিতা। তবে কি না, মিষ্টি তো আর গড়পরতা ঘুমের ওষুধের মত সস্তা হবে না। খাবার পর ঘুম না আসলে ২টো সন্দেশ টপাটপ মুখে পুরতে খরচ ১২ দু’গুনে ২৪ টাকা। আর হ্যাঁ, মিষ্টিপ্রেমীরা লোভে পড়ে ২টোর বেশি খাবেন না যেন, রয়েছে কড়া সতর্কীকরণ। ২ টো-তেই যদি রাত কাবার হয়ে ঝরঝরে সকাল চলে আসে, তাহলে আর বেশি খাওয়ার দরকারটাই বা কি! আরও একটা কথা, সন্দেশটি একই সঙ্গে ডায়াবেটিকও। অর্থাৎ সুগারের রোগীরাও নিশ্চিন্তে খেতে পারেন ‘সাউন্ড স্লিপ’। নেই অন্য কোনও সাইড এফেক্টও, জানালেন সংস্থার ম্যানেজিং ডিরেক্টর আর কে পাল।  

এটি পুরোপুরিভাবে ভেষজ পদ্ধতিতে তৈরি। সুষনি শাক দিয়ে তৈরি করা হয় এই মিষ্টি। যার বিজ্ঞানসম্মত নাম মারসলিয়া মিনুটা লিন। গ্রামবাংলার আনাচে কানাচে পাওয়া যায় এই শাক। গত ২০০৩ সাল থেকে ভাবনা চিন্তা শুরু করার পর বহু পরীক্ষা নিরীক্ষা চালিয়ে বাজারে নিয়ে আসা হয়েছে একে।

শুধু ঘুমের ওষুধ থুরি মিষ্টি নয়, এই সংস্থার ঝুলিতে রয়েছে কুলেখাড়া পাতা দিয়ে তৈরি মুক্তি সুইটস যা রক্তে হিমোগ্লোবিন বাড়াতে সাহায্য করে, আছে স্পন্দন সুইটস যা রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ রাখে। এছাড়া ক্যানসার প্রতিরোধে রয়েছে গাজরের রসগোল্লা ও সন্দেশ। গাজরের মধ্য যে ক্যারোটিনো থাকে তা এই মারন রোগ প্রতিরোধে সাহায্য করে।

সে সব না হয় পরেই হবে, আপাতত টপাটপ দুটো মিষ্টি খেয়ে ঘুমিয়ে পড়ুন দিকি।  

 

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here