হুগলি: শুক্রবার শিবরাত্রি উপলক্ষে তারকেশ্বরে পুজো দিতে যাওয়ার পথে ভয়াবহ দুর্ঘটনার শিকার হয়ে মৃত্যু হল তিনজনের। আশঙ্কাজনক অবস্থায় অন্য একজন ভরতি হাসপাতালে।

দুর্ঘটনার শিকার হওয়ার সময় স্কুটার আরোহীদের কারও মাথায় হেলমেট ছিল না বলেই দাবি করেছেন প্রত্যক্ষদর্শীরা। এমনকী, তাঁরা ঠিক কোথা থেকে তারকেশ্বরের মন্দিরে যাচ্ছিলেন, সে সম্পর্কেও নির্দিষ্ট কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি। যদিও গুরুতর আহত চতুর্থ স্কুটার সওয়ারি (যিনি বর্তমানে চিকিৎসাধীন) তাঁকে না কি ক্ষীণকণ্ঠে কলকাতা শব্দটি বলতে শোনা গিয়েছে। যদিও পুলিশ তাঁদের খোঁজ নিতে স্কুটারের নম্বর ধরে এগোচ্ছে বলে জানা গিয়েছে।

এ দিন সকালে একটি স্কুটিতে চলে তারকেশ্বরের বাগবাড়ি থেকে মন্দিরের উদ্দেশে যাচ্ছিলেন চারজন। তাঁরা বৈদ্যবাটি-তারকেশ্বর রোড ধরে যাচ্ছিলেন। সে সময়ই উল্টোদিক থেকে আসা একটি ট্রাকের সঙ্গে তাঁদের সংঘর্ষ ঘটে। জানা যায়, ঘটনাস্থলেই ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে তিনজনের মৃত্যু হয়।

অন্য এক স্কুটার সওয়ারিকে স্থানীয় তারেকশ্বর গ্রামীণ হাসপাতালে ভরতি করানো হয়। সেখানকার চিকিৎসকদের পরামর্শে তাঁকে কলকাতায় স্থানান্তরের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

আরও পড়ুন মেয়াদি বিমা কেন আদর্শ? জেনে নিন ৬টি অন্যতম সুবিধা

আহত ব্যক্তির কথায় ইঙ্গিত মিলেছে, তাঁরা সম্ভবত কলকাতার বাসিন্দা। তাঁদের প্রত্যেকেরই বয়স ৩০-৩৫ বছরের মধ্যে বলেই অনুমান করা হচ্ছে।

আপডেট আসছে…

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন