Bengal Polls 2021: চতুর্থ দফার ভোটের আগে ফের কেন্দ্রীয় বাহিনীর আচরণ নিয়ে সরব মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

0

খবর অনলাইন ডেস্ক: বৃহস্পতিবার চারটি জনসভা রয়েছে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Mamata Banerjee)। প্রথমে হুগলির বলাগড়ে সভার পরে শ্রীরামপুরে জনসভা করেন তিনি। তাঁর এ দিনের বক্তৃতাতেও উঠে এল কেন্দ্রীয় বাহিনী প্রসঙ্গ।

রাজ্যের বিধানসভা ভোটের চতুর্থ দফার আগে মমতা ভোটারদের উদ্দেশে বলেন, “কন্যাশ্রী, রূপশ্রী, স্বাস্থ্যসাথী, পড়ুয়াদের স্মার্টফোন… থেকে সমস্ত কিছুই করেছি। এত কাজ করার পরেও বিজেপি কী ভাবে ভোট চায়? ওরা কী করেছে”?

কেন্দ্রীয় বাহিনীকে কোনো দোষ দিচ্ছেন না বলে জানিয়ে মমতা বলেন, “আমি দোষ দিচ্ছে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে। অমিত শাহের নির্দেশে সব হচ্ছে। কেন্দ্রীয় বাহিনীকে দিয়ে ভয় দেখাচ্ছে। বলছে, তৃণমূলকে ভোট না দেওয়ার কথা বলবে। ওদের কোনো দোষ নেই। আমি সুযোগ পেলে পরে ব্যবস্থা নেব। আইনত লড়ব, রাজনৈতিক ভাবেও লড়ব”।

তিনি আরও বলেন, “কেন্দ্রীয় বাহিনীর বিরুদ্ধে আমার কোনো রাগ নেই। কিন্তু বিজেপির কথা শুনে মানুষকে ধমকাবেন, চমকাবেন না। অমিত শাহের কথা শুনবেন না, সংবিধানের কথা শুনুন। আপনারা প্রেসের কথা শুনুন। এলাকায় এলাকায় পাঠিয়ে দিয়ে অমিত শাহ বলতে বলছেন, ভোট দিতে যাবেন না, তৃণমূল কংগ্রেসকে ভোট দেবেন না। বিজেপিকে ভোট দিন। ইয়ার্কি হচ্ছে এটা? এটা বাংলা, গুজরাত নয়”।

Shyamsundar

তৃণমূল প্রার্থীদের জয়ী করার আহ্বান জানিয়ে মমতা বলেন, “শ্রীরামপুরের প্রার্থী মানুষের জন্য কাজ করেছেন। তাই তাঁকেই আবার প্রার্থী করেছি। চাঁপদানিতে বিজেপি-কে রফতানি আর তৃণমূলকে আমদানি করতে হবে। আবদুল মান্নানকে জেতাবেন না। ও সিপিএম-এর সঙ্গে মিলে আমাকে খুব জ্বালায়। তাই অরিন্দমকেই জেতাবেন”।

প্রসঙ্গত, বুধবার কোচবিহারের জনসভায় এ বারের ভোটে কেন্দ্রীয় বাহিনীর আচরণ নিয়ে উষ্মা প্রকাশ করেন মমতা। তিনি মা-বোনেদের উদ্দেশে বলেন, সিআরপিএফ ভোট দিতে বাধা দিলে তাদের ঘেরাও করতে। মমতা সেই মন্তব্যেরই রিপোর্ট তলব করে নির্বাচন কমিশন (election commission)।

আরও পড়তে পারেন: মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ‘কেন্দ্রীয় বাহিনীকে ঘেরাও’ মন্তব্যে রিপোর্ট তলব নির্বাচন কমিশনের

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন