anti rabies vaccine

কলকাতা: দুর্ঘটনা আজ থেকে ২২ বছর আগের। সে সময় ১৫ বছরের কিশোর দীননাথ চৌধুরী হুগলি জেলার চন্দননগরের এস ডি হাসপাতালে অসংরক্ষিত অ্যান্টি-রেবিজ প্রতিষেধকের প্রয়োগে প্রাণ হারান। বুধবার মৃতের পরিবারকে জেলা ক্রেতা সুরক্ষা আদালত (ডিস্ট্রিক্ট কনজিউমার ডিসপুট রিড্রেসাল ফোরাম কোর্ট)  ১৯,২০,০০০ টাকা ক্ষতিপূরণের নির্দেশ দিল। পাশাপাশি আইনি লড়াইয়ের ব্যয় বাবদ ১০ হাজার টাকা ফিরিয়ে দেওয়ারও নির্দেশ দেয় আদালত।

জেলা ক্রেতা সুরক্ষা আদালত জানায়, মৃতের পরিবারের হাতে ওই আর্থিক ক্ষতিপূরণ আগামী ৩০ দিনের মধ্যে তুলে দিতে হবে। এ বিষয়ে আদালতের তরফে অভিযুক্ত এস ডি হাসপাতাল, রাজ্যের মুখ্যসচিব এবং রাজ্য স্বাস্থ্য দফতরের কাছেও ওই নির্দেশিকা পাঠানো হয়েছে।

অভিযোগ, দীননাথকে যে অ্যান্টি-রেবিজ প্রতিষেধকটি দেওয়া হয়েছিল তা সাধারণ ঘরের তাপমাত্রায় রাখা হয়েছিল। যা সংরক্ষণের কথা রেফ্রিজারেটরের নির্দিষ্ট তাপমাত্রায়। কিন্তু হাসপাতালের ওই ঠান্ডাযন্ত্রটি নিজের কোর্য়াটারে ব্যবহারের জন্য নিয়ে যান তৎকালীন হাসপাতাল সুপার।

দীননাথের পরিবারকে এই আইনি লড়াইয়ে সহায়তা করে আসছিল মানবাধিকার সংগঠন এপিডিআর। এপিডিআর সদস্য বাপি দাসগুপ্ত প্রতিনিয়ত এই মামলার তত্ত্বাবধান করেছেন। মামলাটিতে অভিযোকারীর তরফে আইনজীবী হিসাবে ছিলেন রঘুনাথ চক্রবর্তী। সম্প্রতি এপিডিআরের আবেদনে সাড়া দিয়ে রাজ্য স্বাস্থ্য দফতর ঘটনার তদন্তে পাঁচ সদস্যের একটি কমিটি গড়ে দেয়।  দীর্ঘ ২২ বছর পর আইনি পথে প্রাপ্য বিচার আদায়ের পর যথারীতি ওই সংগঠন এবং বিশিষ্ট আইনজীবীর প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান মৃতের পরিবার।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here