কলকাতা: স্বাস্থ্যসাথী কার্ড ফেরানোর অভিযোগ উঠেছে একাধিক বেসরকারি হাসপাতালের বিরুদ্ধে। তাদের বিরুদ্ধে কড়া হুঁশিয়ারি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। বুধবার নবান্ন সভাঘরে সাংবাদিক বৈঠকে জানিয়ে দিলেন, স্বাস্থ্যসাথী কার্ড ফেরালে ‘রাফ অ্যান্ড টাফ’ হবে রাজ্য।

স্বাস্থ্যসাথী কার্ডে বিনামূল্যের সরকারি পরিষেবা নিয়ে অভিযোগ বিস্তর। বিশেষ করে বেসরকারি হাসপাতালের বিরুদ্ধে ফেরানোর অভিযোগ ওঠে প্রায়শই। এমন পরিস্থিতিতে মুখ্যমন্ত্রী জানিয়ে দিলেন, “স্বাস্থ্যসাথী কার্ড গ্রহণ না করলে হাসপাতালের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে। যে সব নার্সিংহোম স্বাস্থ্যসাথী কার্ড ফেরাচ্ছে, এ বার তাদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করব আমরা। সাধারণ মানুষ যেন স্বাস্থ্যসাথীর সুবিধা পায়। আমি আবেদন করব, বাইরে না গিয়ে এই রাজ্যেই চিকিৎসা করান। এখানে এখন সমস্ত চিকিৎসার ব্যবস্থা রয়েছে”।

এ দিন নবান্নে জেলাশাসক, মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিকদের নিয়ে বৈঠকে বসেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। রাজ্যের স্বাস্থ্য পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা করেন তিনি। আলোচনা হয় স্বাস্থ্যসাথী কার্ড নিয়েও। তার পরই সাংবাদিক বৈঠক থেকে স্বাস্থ্যসাথী কার্ড ফেরানোয় আইনি পথে কড়া পদক্ষেপ নেওয়ার কথা জানান তিনি।

মুখ্যমন্ত্রীর কথায়, “স্বাস্থ্য দফতরকে বলা হয়েছে, যারা স্বাস্থ্যসাথী কার্ড নিচ্ছে না তাদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে। প্রয়োজনে লাইসেন্সও বাতিল করা হবে”।

তবে স্বাস্থ্যসাথী কার্ড নিয়ে এই প্রথম নয়, আগেও হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। তিনি বলেছিলেন, কেউ যদি চিকিৎসা দিতে রাজি না হয়, তাতে লাইসেন্স বাতিলের ক্ষমতা রয়েছে রাজ্য সরকারের। কোনো বেসরকারি হাসপাতালও স্বাস্থ্যসাথী কার্ড নিতে অস্বীকার করলে, কড়া ব্যবস্থা নেওয়ার হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। তার পরেও হেনস্থার শিকার হতে হচ্ছে সাধারণ মানুষকে।

আরও পড়তে পারেন:

হয় নাতি-নাতনি, নয়তো দাও ৫ কোটি! ছেলে-বউমার বিরুদ্ধে আদালতের দ্বারস্থ বৃদ্ধ দম্পতি

কোভিডের মধ্যে হাজির টম্যাটো ফ্লু, দেশে আক্রান্ত ৮০-র বেশি শিশু

পুনর্বিবেচনা চলাকালীন স্থগিত রাষ্ট্রদ্রোহ আইন, ঐতিহাসিক রায় সুপ্রিম কোর্টের

কাটল দীর্ঘ জটিলতা, বিধায়ক হিসেবে শপথ নিলেন বাবুল সুপ্রিয়

স্মার্টফোন, ল্যাপটপ, টেলিভিশন, রেফ্রিজারেটরের দাম বাড়তে পারে, জানুন কেন

সংক্রমণের হার ৪.৩৮ শতাংশ, দিল্লিতে করোনা কমার ইঙ্গিত

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন