extreme heat in bengal
ফাইল ছবি।

কলকাতা: কলকাতা-সহ সমগ্র দক্ষিণবঙ্গে এখনই এই দুঃসহ গরম থেকে মিলছে না। শনিবার থেকে বৃষ্টি বাড়ার সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া বিশেষজ্ঞরা।

গত শুক্রবার প্রবল বৃষ্টিতে ভেসে গিয়েছিল কলকাতা। তার কিছুটা রেশ শনিবারেও ছিল। কিন্তু রবিবার থেকে আমুল বদলে গেল আবহাওয়া। মনরম আবহাওয়ার বদলে দখল নিল অস্বস্তিকর গরম। সেই গরমের দাপট এতটাই বেশি যে সোমবার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা উঠে যায় ৩৬.১ ডিগ্রিতে। স্বাভাবিকের থেকে যা চার ডিগ্রি সেলসিয়াস বেশি। সেই সঙ্গে বাতাশে আর্দ্রতা বেশি থাকায় অস্বস্তি আরও বাড়ে।

আপাতত অন্তত তিনদিন এই পরিস্থিতি বজায় থাকবে বলে জানিয়েছেন বেসরকারি আবহাওয়া সংস্থা ওয়েদার আল্টিমার কর্ণধার আবহাওয়া বিশেষজ্ঞ রবীন্দ্র গোয়েঙ্কা। “এই মুহূর্তে মৌসুমী অক্ষরেখা উত্তরবঙ্গে রয়েছে। বঙ্গোপসাগরে কোনো ঘূর্ণাবর্তও নেই, যে জলীয় বাষ্প ঢোকাতে পারে।” তাঁর কথায় দক্ষিণবঙ্গের বাতাশে জলীয় বাষ্প কম থাকার ফলেই বৃষ্টি কমে গিয়েছে। এই পরিস্থিতিতে একমাত্র ভরসা স্থানীয় ভাবে তৈরি হওয়া বজ্রগর্ভ মেঘ থেকে বৃষ্টি। মঙ্গলবার দুপুরের পর কলকাতার বিভিন্ন জায়গায় এরকম ভাবেই দু’এক পশলা বৃষ্টি হয়েছে। কিছুটা কমেছে অস্বস্তি।

তবে শনিবার থেকে পরিস্থিতি বদলাবে বলে আশাবাদী রবীন্দ্রবাবু। এর কারণ আন্দামান সাগরে একটি সম্ভাব্য নিম্নচাপ। বুধ-বৃহস্পতিবার নাগাদ ওই নিম্নচাপটি তৈরি হওয়ার কথা। প্রাথমিক ভাবে মনে করা হচ্ছে ওই নিম্নচাপটি ক্রমশ শক্তিবৃদ্ধি করে অন্ধ্রপ্রদেশ এবং ওড়িশা উপকূলের দিকে আসবে। এর ফলে দক্ষিণবঙ্গে ঢুকতে শুরু করবে জলীয় বাষ্প। বাড়বে বৃষ্টি। শনিবারের পর কলকাতা তথা সমগ্র দক্ষিণবঙ্গে ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনাও দেখছেন তিনি।

তবে দক্ষিণবঙ্গে বৃষ্টির আকাল হলেও, উত্তরবঙ্গে বৃষ্টিপাত জারি রয়েছে। সোমবার উত্তরবঙ্গের বিভিন্ন জায়গায় ভারী থেকে অতিভারী বৃষ্টি হয়েছে।

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন