কলকাতা: মন্ত্রীসভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী হাওড়া পুরসভা থেকে আলাদা হয়ে গেল বালি পুরসভা। শুক্রবার এই মর্মে প্রস্তাব পাশ হয়ে গেল বিধানসভায়।

রাজ্যের পুর ও নগরোন্নয়ন মন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য এ দিন বিধানসভায় জানান, “মাইক্রো লেভেলে নাগরিক পরিষেবা পৌঁছে দিতে এই সিদ্ধান্ত”।

উল্লেখ্য, ২০১৫ সালে ১৩২ বছরের পুরনো বালি পুরসভার সংযুক্তিকরণ ঘটেছিল হাওড়া পুরনিগমের সঙ্গে। বালি পুরসভার ৩৫টি ওয়ার্ডকে পুনর্বিন্যাস প্রক্রিয়ায় ১৬টি ওয়ার্ডে নামিয়ে আনা হয়। সেই ১৬টি ওয়ার্ড নিয়ে হাওড়া পুরসভায় ছিল ৬৬টি ওয়ার্ড। এ দিন বালি পুরসভা আলাদা হয়ে যাওয়ার ফলে আগামী পুরনির্বাচনে হাওড়ায় ভোট হবে ৫০টি ওয়ার্ডে।

আগামী ১৯ ডিসেম্বর কলকাতার পাশাপাশি হাওড়া পুরসভার নির্বাচন করানোর প্রস্তাব দিয়েছে রাজ্য সরকার। তাতে সায় রয়েছে রাজ্য নির্বাচন কমিশনেরও। তবে হাওড়ার ৫০টি ওয়ার্ডে এখন ভোট হলেও বালি পুরসভার ১৬টি ওয়ার্ডে এই দফায় ভোট হবে না বলেই জানা গিয়েছে।

প্রসঙ্গত, রাজ্যে রাজনৈতিক পালাবদলের পর ২০১৩ সালের ১০ ডিসেম্বর হাওড়া পুরসভা বামফ্রন্টের হাত থেকে দখল করেছিল তৃণমূল। ২০১৮ সালের ১০ ডিসেম্বর তৃণমূল পরিচালিত বোর্ডের মেয়াদ শেষ হলেও ভোটগ্রহণ হয়নি। বর্তমানে রাজ্যের অধিকাংশ পুরসভার মতো হাওড়াতেও পুরসভা চালাচ্ছে প্রশাসন বোর্ড। তবে ২০১৯-এর লোকসভা নির্বাচনে পুরসভার ১৬টি ওয়ার্ডের মধ্যে ৭টি ওয়ার্ডেই শাসক দল পিছিয়ে পড়েছিল।

আরও পড়তে পারেন:

মেঘ ঢকালো তামিলনাড়ু উপকূলের নিম্নচাপ, আগামী ৩-৪ দিন দফায় দফায় হালকা বৃষ্টি দক্ষিণবঙ্গে

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন