হাওড়া: ফুলশয্যার রাত মিটতেই গলায় ফাঁস লাগানো ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার বরের। মর্মান্তিক ঘটনাটি হাওড়ার শালিমার এলাকার। ঠিক কী কারণে আত্মঘাতী হলেন সদ্য বিবাহিত যুবক? নেপথ্যে রয়েছে কি অন্য কোনো কারণ? ঘটনার তদন্তে নেমেছে বি গার্ডেন থানার পুলিশ।

ঘটনায় প্রকাশ, গত ৭ ডিসেম্বর হাওড়ার শালিমার এলাকার বাসিন্দা আদর্শ সাউয়ের বিয়ে হয়েছিল ব্যারাকপুরের বর্ষা কুমারী নামে এক তরুণীর। পরিবারের তরফে দেখাশোনা করেই ধুমধাম করে বিয়ে হয়েছিল তাঁদের। কিন্তু মর্মান্তিক ঘটনা ঘটে গেল ফুলশয্যার পরের দিন ভোরেই।

বৃহস্পতিবার ছিল নবদম্পতির ফুলশয্যা। জানা যায়, শুক্রবার ভোরে বর্ষা ঘুম থেকে উঠে শৌচালয়ে যান। ফিরে এসে দেখেন তাঁর স্বামী আদর্শ সাউয়ের দেহ ঝুলছে গলায় ফাঁস লাগানো অবস্থায়। খবর দেওয়া হয় পুলিশে।

খবর পেয়েই আদর্শকে হাসপাতালে নিয়ে যায় পুলিশ। সেখানে নিয়ে গেলে তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন চিকিৎসকেরা। পুলিশ ময়নাতদন্তে পাঠায় মৃতদেহ। পুলিশ সূত্রে খবর, ঘটনাস্থল থেকে এখনও কোনো সুইসাইড নোট-ও উদ্ধার হয়নি।

সদ্য বিবাহিত যুবকের এহেন মৃত্যুতে শোকস্তব্ধ দুই পরিবার। বিয়ের সময় কোনো রকমের অবসাদের চিহ্ন তাঁরা দেখতে পাননি যুবকের আচরণে। এমনকী বর্ষাও জানিয়েছেন, বিয়ের আগেও তাঁদের মধ্যে ফোনে কথাবার্তা হতো। সে সময়েও কোনো অস্বাভাবিক বিষয় টের পাননি তিনি। তা হলে ফুলশয্যার ভোরে এমন কী ঘটল, যাতে চরম সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেললেন আদর্শ?

একই সঙ্গে এই ঘটনা ঘিরে শুরু হয়েছে গুঞ্জন। দু’জনের সম্পর্কে কোনো জটিলতা দেখা গিয়েছিল কি না, সে সব নিয়েই চলছে চর্চা।

আরও পড়তে পারেন:

পঞ্জাব বিধানসভা ভোট: আপের প্রার্থীতালিকায় বড়ো চমক, ৩০ জনের মধ্যে রাজ্যের প্রাক্তন পুলিশকর্তা

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেপাল সফরেও অনুমতি দিল না বিদেশমন্ত্রক

সাতসকালে গুলি চলল কলকাতায়, গুরুতর জখম দুই

আয়করে বাঁধতে ক্রিপ্টোকারেন্সিকে ‘মূলধন সম্পদ’ হিসাবে বিবেচনা করার দাবি

দৈনিক সংক্রমণ কমলেও দুই রাজ্য ও এক কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের তথ্য পরিমার্জন বাড়িয়ে দিল মৃতের

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন