কলকাতা: মঙ্গলবার থেকে মেঘবৃষ্টির খেলা চলেছে শুক্রবার সন্ধ্যা পর্যন্ত। শনিবার সকাল থেকে বদলাতে শুরু করেছে আবহাওয়া। আকাশ মেঘাচ্ছন্ন থাকলেও মেঘের সেই আস্তরণ ভেদ করে ক্রমে ঢোকার চেষ্টা করছে কনকনে উত্তুরে হাওয়া। এর জেরে রবিবার থেকে বড়ো পতনের সম্ভাবনা সর্বনিম্ন তাপমাত্রায়।

তবে ঠান্ডা যে ফের ফিরছে সেটা কিন্তু শনিবার সকাল থেকেই বোঝা যাচ্ছে। গত কয়েকদিনের তুলনায় এ দিন বেশ কিছুটা কমেছে কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা। শহরে এ দিন সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ১৬.৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে মাত্র তিন ডিগ্রি সেলসিয়াস বেশি। গত ২৪ ঘণ্টায় কলকাতায় ০.৫ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে।

তাপমাত্রা কমেছে দক্ষিণবঙ্গের সর্বত্রই। দক্ষিণবঙ্গে এ দিন শীতলতম স্থানে তকমা জুটেছে কাঁথির কপালে। পারদ নেমে গিয়েছে ১১ ডিগ্রি সেলসিয়াসে। বৃষ্টি হয়েছে ৩ মিলিমিটার। উপকূলের দিঘায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ১৩.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস, বৃষ্টি হয়েছে ৬.২ মিলিমিটার।

তুলনায় রাজ্যের পশ্চিমের জেলাগুলিতে তাপমাত্রা কিছুটা বেশিই ছিল। তা রেকর্ড করা হয়েছে ১৪ ডিগ্রির আশেপাশে। বৃষ্টিও সব জায়গাতেই অল্পস্বল্প হয়েছে।

শনিবার সকালেও আকাশ মেঘলা। তবে বৃষ্টি কোথাওই হচ্ছে না। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে আকাশ ক্রমশ পরিষ্কার হয়ে রোদের দেখা মিলবে বলে মনে করা হচ্ছে। আর সেই সুযোগে শীতের দাপট বাড়বে। রবিবার কলকাতার তাপমাত্রা ১৪ ডিগ্রিতে নেমে যেতে পারে। পরের দু’দিনে তা নামতে পারে ১২ ডিগ্রির ঘরে।

তবে শীতের এই তৃতীয় দফার দাপট স্থায়ী হবে শুক্রবার পর্যন্ত। কারণ তার পরে আরও একটি পশ্চিমী ঝঞ্ঝার আগমনের ফলে সামনের সপ্তাহান্তে ফের এক দফা বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে দক্ষিণবঙ্গে।

আরও পড়তে পারেন

পশ্চিমবঙ্গে সক্রিয় কোভিডরোগী ১ লক্ষ ৪৫ হাজারের বেশি, হাসপাতালে ভরতি মাত্র ১.০৮ শতাংশ

মেঘাছন্ন আবহাওয়ায় পাইলটের ভুলে দুর্ঘটনা রাওয়াতের কপ্টারে: বায়ুসেনা

পুরভোট তিন সপ্তাহ পিছনোর কথা ভাবছে নির্বাচন কমিশন, একই দাবি জানাতে পারে তৃণমূলও

২৩ হাজারের নীচে থাকল দৈনিক সংক্রমণ, মৃত্যুহারে আরও ধস

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন