killed
ছবি: প্রতীকী

ওয়েবডেস্ক: বিবাহ-বহির্ভূত ঘটনার জেরে এক মর্মান্তিক ঘটনার সাক্ষী হল পূর্ব মেদিনীপুরের ভূপতিনগরের দক্ষিণ বরোজগ্রাম। এই গ্রামের বাসিন্দা লালু হাতি কর্মসূত্রে কলকাতায় থাকেন। তিনি জানতে পারেন তাঁর অনুপস্থিতিতে স্ত্রী নিজের স্ত্রী জড়িয়ে পড়েছেন বিবাহ-বহির্ভূত সম্পর্কে। হাতেনাতে ধরতে গত বৃহস্পতিবার লালু আগাম না জানিয়েই বাড়ি ফেরেন। সেখানে গিয়ে দেখেন, তাঁর সন্দেহ সঠিক। মাথা ঠিক না রাখতে পেরে তৎক্ষণাৎ ধারালো অস্ত্র দিয়ে খুন করেন প্রেমিক নাড়ু জানাকে। তাঁর আক্রোশ থেকে রেহাই পাননি স্ত্রীও। বর্তমানে ক্ষতবিক্ষত স্ত্রী ভর্তি রয়েছেন তমলুক জেলা হাসপাতালে। ঘটে গিয়েছে এক মর্মান্তিক ঘটনা।

প্রতিবেশীদের সূত্রে জানা গিয়েছে, এই বিবাহ-বহির্ভূত সম্পর্কের কথা লালু আগেই জানতে পেরেছিল। তাঁর অনুপস্থিতিতে স্ত্রী যে পরপুরুষের সঙ্গে দিন কাটান, সে কথা তিনি জানার পর থেকেই নাড়ুকে হাতেনাতে ধরার চেষ্টায় ছিলেন। বৃহস্পতিবার যে কারণে স্ত্রীকে কোনো রকম খবর না দিয়েই লালু বাড়ি ফেরেন। রাতে বাড়িতে গিয়ে দেখেন, স্ত্রী শুয়ে রয়েছেন নাড়ুর সঙ্গে। এবং সেই আপত্তিকর দৃশ্য লালুকে উত্তেজিত করে তুলতেই তিনি চরম সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেন।


পড়তে পারেন: ‘শোবার ঘরের দরজা খুলে রেখে ঘুমোন’, গৃহবন্দি সমাজকর্মীর মহিলা সঙ্গীকে বলল পুলিশ!

প্রথমে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে খুন করেন নাড়ুকে। তার পর চড়াও হন স্ত্রীর উপর। চিৎকার শুনে ছুটে আসেন প্রতিবেশীরা। সে যাত্রায় কোনো রকমে প্রাণে বেঁচে যান স্ত্রী। জানা গিয়েছে, পুলিশ গিয়ে গ্রেফতার করে লালুকে। নাড়ুর মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয় কাঁথি মহকুমা মর্গে।

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন