muharram in bengal
মহরমের তাজিয়া। পিটিআই ফাইল ছবি

কলকাতা: মহরমের মিছিলে অস্ত্র প্রদর্শন ইসলাম-বিরুদ্ধ। এই মর্মে মহরমের মিছিলে অস্ত্রে প্রদর্শন না করার আবেদন জানালেন রাজ্যের একাধিক ইমাম। পাশাপাশি একই আবেদন করেছেন তৃণমূল নেতৃত্বও।

বুধবার একটি অনুষ্ঠানে কলকাতার নাখোদা মসজিদের ইমাম মৌলানা শাফিক কাশমি বলেন, “মহরম আমাদের দুঃখের মাস। এর সঙ্গে অস্ত্র প্রদর্শনের কোনো সম্পর্ক নেই। লাঠি এবং অস্ত্র দিয়ে মিছিল সম্পূর্ণ ইসলাম-বিরুদ্ধ। এমন কিছু করবেন না, যার থেকে সাম্প্রদায়িক শক্তিগুলো আরও অক্সিজেন পেয়ে যায়।”

একই আবেদন করেছেন আসানসোলের ইমাম মৌলানা ইমদাদুল রশিদিও। আসানসোলে গোষ্ঠী সংঘর্ষের সময়ে নিজের ছেলের মৃত্যুর পরেও তাঁর শান্তির আবেদন বাহবা কুড়িয়েছিল গোটা দেশবাসী। তিনিও মনে করেন, অস্ত্র প্রদর্শনের সঙ্গে ইসলামের কোনো সম্পর্ক নেই।

আরও পড়ুন সংখ্যালঘু মন জয়ে মহরমের অনুষ্ঠানে যোগ দিচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী!

শুধু এই দু’জনই নন, রাজ্যের আরও অনেক প্রভাবশালী ইমামই অস্ত্রমিছিল না করার আবেদন করেছেন। এই আবেদন করা হয়েছে তৃণমূলের তরফ থেকেও। তৃণমূল সাংসদ ইদ্রিশ আলি বলেন, “আমরা বিভিন্ন মুসলিম সংগঠনের কাছে আবেদন জানিয়েছি যে তারা যেন এমন কিছু না করে যাতে অন্য কারও ভাবাবেগে আঘাত লাগে। এই অস্ত্রমিছিলকে কেন্দ্র করে বিজেপির মতো কিছু শক্তি সাম্প্রদায়িক উসকানিও দিতে পারে। সেটা যাতে না হয়, সেই কারণেই আমরা এই আবেদন করেছি।”

উল্লেখ্য, গত দু’বছর ধরে রামনবমীকে কেন্দ্র করে অস্ত্রমিছিলের আয়োজন করছে বিজেপি। এই মিছিলকে কেন্দ্র করে বেশ কিছু জায়গায় গোষ্ঠী সংঘর্ষের ঘটনাও ঘটেছে। মহরমে অস্ত্রমিছিল বন্ধ করার আবেদনকে অবশ্য স্বাগত জানিয়েছেন বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ। তবে এই আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে তাঁরাও রামনবমীতে অস্ত্রমিছিল বন্ধ করার আবেদন জানাবেন কি না, সে ব্যাপারে কিছু জানাননি দিলীপবাবু।

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন