খবরঅনলাইন ডেস্ক: প্রধানমন্ত্রীর ডাকা বৈঠক এড়িয়ে যাওয়ার অভিযোগে কেন্দ্রীয় সরকারের যে শো-কজ নোটিশ (show cause notice) পাঠানো হয়েছিল, তার জবাব দিলেন পশ্চিমবঙ্গের (West Bengal) প্রাক্তন মুখ্যসচিব (ex chief secretary) আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায় (Alapan Bandyopadhyay)। আলাপনবাবু তাঁর জবাবে বলেছেন, ঘূর্ণিঝড় ইয়াস নিয়ে কলাইকুন্ডায় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বৈঠক থেকে তিনি “বিরত” থাকেননি এবং “যতক্ষণ মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন ততক্ষণ” তিনি ছিলেন।

এক সূত্রকে উদ্ধৃত করে সংবাদসংস্থা পিটিআই বলেছে, প্রাক্তন মুখ্যসচিব বলেছেন, “মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশ অনুসারে” দিঘা শহরে ঘূর্ণিঝড় ইয়াস-এর ক্ষয়ক্ষতি পর্যালোচনা করার জন্য তিনি গত শুক্রবার প্রধানমন্ত্রীর বৈঠক ছেড়ে চলে আসেন।     

গত ২৮ মে ঘূর্ণিঝড় ‘ইয়াস’-এর (cyclone Yaas) ক্ষয়ক্ষতি নিয়ে পর্যালোচনা করতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী যে বৈঠক ডেকেছিলেন তাতে অনুপস্থিত থাকার জন্য আলাপনবাবুকে শো-কজ নোটিশ ধরানো হয়েছিল। কেন তিনি ওই বৈঠকে গরহাজির ছিলেন আলাপনবাবুকে তার কারণ দর্শাতে বলা হয় ওই নোটিশে।

বৃহস্পতিবার রাজ্য সরকারের সচিবালয় ‘নবান্ন’-এ শীর্ষ আধিকারিকরা জানান, আলাপনবাবু ওই দিন বিকেলেই ওই নোটিশের জবাব দিয়েছেন।  

শো-কজ নোটিশ পাঠানো হয় ৩১ মে

কেন্দ্রের তরফে আলাপনবাবুকে শো-কজ নোটিশ পাঠানো হয় ৩১ মে। তাতে বলা হয়, ঘূর্ণিঝড় ইয়াস-এর পরে তাঁর বাংলা সফরের সময় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী যে বৈঠক ডেকেছিলেন, তাতে তাঁর না থাকার সিদ্ধান্তে ২০০৫-এর বিপর্যয় মোকাবিলা আইন (ডিজাস্টার ম্যানেজমেন্ট অ্যাক্ট, Disaster Management Act 2005) লঙ্ঘিত হয়েছে।

আলাপনবাবুর অবসরের দিন ছিল ৩১ মে। রাজ্যের মুখ্যসচিব পদে তাঁর থাকার মেয়াদ আরও তিন মাস বাড়িয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কেন্দ্রের কাছে যে সুপারিশ করেছিলেন, তাতে সম্মতি দেয় কেন্দ্র। ইতিমধ্যে প্রধানমন্ত্রীর ডাকা বৈঠকে গরহাজির থেকে কেন্দ্রের রোষের শিকার হন আলাপনবাবু।

মুখ্যমন্ত্রীর বিশেষ উপদেষ্টা

তারই জেরে তাঁকে তড়িঘড়ি দিল্লিতে বদলি করা হয় এবং সোমবার ৩১ মে সকাল সাড়ে ১০টায় দিল্লিতে কর্মীবর্গ ও প্রশিক্ষণ দফতরে রিপোর্ট করতে বলা হয়। আলাপনবাবু তা না করে সে দিনই অবসর নিয়ে নেন। এবং অবসর নেওয়ার সঙ্গে সঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী তাঁকে তাঁর নিজের বিশেষ উপদেষ্টা করে নেন। আলাপনবাবু অবসর নেওয়ার ঠিক আগে কেন্দ্রের তরফে তাঁকে কারণ দর্শানোর নোটিশ ধরানো হয়।

আরও পড়ুন: নতুন করে আরও ৮ হাজারের বেশি সক্রিয় রোগী কমল পশ্চিমবঙ্গে, ৫৪ দিন পর কলকাতায় সংক্রমণ হাজারের নীচে

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন